Alexa দাম বাড়ায় মসজিদের জমি দখল করলেন ভূমি কর্মকর্তা!

দাম বাড়ায় মসজিদের জমি দখল করলেন ভূমি কর্মকর্তা!

গাজীপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:০৬ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২০:০৭ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

তিন বছর আগে ওয়াকফ করা জমিতে মসজিদ নির্মাণ করেন স্থানীয়রা। মসজিদ নির্মাণের পাশাপাশি বানানো হয় ওজুখানা, দুটি টয়লেট ও গোসলখানা। সম্প্রতি মসজিদের আশপাশের জমির দাম বাড়ায় মসজিদ ছাড়া বাকি স্থাপনা কাঁটা তারের বেড়া দিয়ে দখল করেছেন ভূমি কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন। এমন অভিযোগে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

রোববার দুপুরে গাজীপুরের শ্রীপুরের বরমী ইউপির হরতকির টেক গ্রামে এমন ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় শ্রীপুর থানায় গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন স্থানীয় সেলিম ফকির। অভিযুক্ত গিয়াস গাজীপুর ভূমি অফিসে ভূমি উপ-সহকারী র্কমর্কতা হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

অভিযোগকারী সেলিম ফকির জানান, স্থানীয় মমতাজ উদ্দিনের  ছেলে নূর মোহাম্মদ ও মেয়ে হালিমা খাতুন পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া ১৫ শতাংশ জমি মসজিদ নির্মাণের জন্য ওয়াকফ করে দেন। ওই জমিতে স্থানীয়রা ওজুখানা, দুটি টয়লেট ও গোসলখানাসহ পাকা মসজিদ নির্মাণ করেন। সম্প্রতি জমির দাম বাড়ায় স্থানীয় গিয়াস উদ্দিন ওজুখানা, দুটি টয়লেট ও গোসলখানা কাঁটা তারের বেড়া দিয়ে দখল করে নেন। এতে নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিরা ওজুসহ প্রাকৃতিক কাজ করতে সমস্যায় ভুগছেন। দখলের সময় ওয়াকফ দাতার ভাগিনা গিয়াস উদ্দিনের দখলে বাধা দেন। তবে গিয়াস তাকে হুমকি দেয়ার পাশাপাশি গালিগালাজ করেন।

অভিযুক্ত গিয়াস উদ্দি জানান, মসজিদের জায়গা দখল করেননি তিনি। তার মালিকানাধীন দুই শতাংশ জমি ৮ বছর ধরে বেদখল ছিল। বেদখলীয় জমি দখল নিয়েছেন তিনি।

শ্রীপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ আকতার হোসেন জানান, মসজিদের জমি দখলের ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছেন। ঘটনাটির তদন্ত হচ্ছে। দখলের প্রমাণ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ