তানিয়া ধর্ষণ-হত্যায় বাস চালকের জবানবন্দি
Best Electronics

তানিয়া ধর্ষণ-হত্যায় বাস চালকের জবানবন্দি

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:২৩ ১২ মে ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কিশোরগঞ্জে চলন্ত বাসে নার্স শাহিনুর আক্তার তানিয়াকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন বাসচালক নুরুজ্জামান নুরু।

এ তথ্য জানিয়েছেন পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

রোববার দুপুরে কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরের ঘটনাস্থল পরিদর্শনের সময় সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান। 

তিনি বলেন, শনিবার রাতে বাসচালক নুরুজ্জামান নুরুকে কিশোরগঞ্জ আদালতে হাজির করা হলে তিনি তানিয়াকে ধর্ষণ ও হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।

এর আগে বুধবার বিকেলে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আল-মামুন রিমান্ড শুনানি শেষে পাঁচ আসামির প্রত্যেকের আট দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ৬ মে রাতে শাহিনুর আক্তার ওরফে তানিয়া ঢাকা থেকে বাসে করে বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর যাচ্ছিলেন। পথে উপজেলার গজারিয়া-জামতলী এলাকায় সে ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।

নিহত তানিয়া উপজেলার লোহাজুরী ইউপির বাহেরচর গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের মেয়ে। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নার্স হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

এ ঘটনায় বাসের চালক নূরুজ্জামান ও হেলপার (সহকারী) লালন মিয়াসহ মোট পাঁচজনকে আটক করে পুলিশ।

গত ৭ মে নিহত তানিয়ার বাবা গিয়াস উদ্দিন বাদী হয়ে চার জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে বাজিতপুর থানায় মামলা করেন।

কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ডা. রমজান মাহমুদ জানান, ময়নাতদন্তে ধর্ষণ ও আঘাতজনিত কারণে তানিয়ার মৃত্যুর আলামত পাওয়া গেছে। এছাড়া ডিএনএ ও প্যাথলজিক্যাল টেস্টের জন্য আলামত সংগ্রহ করে রাখা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ

Best Electronics