তন্ত্রসাধনা করতে বৃদ্ধকে বলিদানের চেষ্টা স্ত্রী-ছেলের!

তন্ত্রসাধনা করতে বৃদ্ধকে বলিদানের চেষ্টা স্ত্রী-ছেলের!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০২:৪৩ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

টানা এক বছর ঘরে বন্দী রেখে তন্ত্রসাধনার অংশ হিসেবে বৃদ্ধ সুধাকর সূত্রধরকে বলিদানের চেষ্টা চালায় স্ত্রী, ছেলে ও ছেলের বউ। তবে ভাগ্যক্রমে পালিয়ে প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন বলে দাবি করেছেন সুধাকর। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় সুধাকরের স্ত্রী, মেয়ে ও ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।-খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

সংবাদমাধ্যমটি জানায়, সাঁইথিয়া ১০ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা সুধাকর সূত্রধর। পেশায় কাঠমিস্ত্রি থাকা এ বৃদ্ধ শুক্রবার রাতে রক্তাক্ত অবস্থায় ছুটতে ছুটতে স্থানীয় ক্লাবে হাজির হন। ওই সময় সুধাকরের মাথা ফেটে রক্ত পড়া দেখেন ক্লাবের সদস্যরা।

সুধাকর সূত্রধর জানান, তার স্ত্রী ও ছেলের বউ তন্ত্রসাধক। সাধনার অংশ হিসেবে তারা সুধাকরকে ঘরে বন্দী করে রাখে। এক পর্যায়ে দরজা-জানালা বন্ধ করে তাকে বলিদানের চেষ্টা করে তারা। শুক্রবার এক সুযোগ পেয়ে বাইরে পালিয়ে আসেন। তখন ছেলে ব্রজগোপাল ভোজালির সামনে পড়েন। এ সময় ছেলে দা দিয়ে কোপ দেয়। এতে মাথা থেকে রক্ত ঝরে তার।

এদিকে তান্ত্রিক স্ত্রী বৃদ্ধ স্বামীকে নরবলি দেয়ার উদ্যোগ নেয় বলে দাবি করছেন স্থানীয়রা। শনিবার রাতের অমাবস্যা ঘিরে বলিদানের আয়োজন চলছিল। ঘটনাটি ফাঁস হওয়ায় অভিযুক্ত স্ত্রী ও মেয়েকে গ্রেফতার করেছে সাঁইথিয়া থানার পুলিশ।

পুলিশ সুপার শ্যাম সিং জানান, তন্ত্রসাধনার বিষয়টি গুজব। পারিবারিক কলহের জেরে মারামারি হয়েছে। এ ঘটনায় বৃদ্ধের স্ত্রী সরস্বতী, ছেলে ব্রজগোপাল ও মেয়ে কাঞ্চন সূত্রধরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ