Alexa ঢাকা রেঞ্জে ৬১ পুলিশ সদস্য পুরস্কৃত

ঢাকা রেঞ্জে ৬১ পুলিশ সদস্য পুরস্কৃত

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:২৩ ১১ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ২১:২৯ ১১ জুলাই ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

ভালো কজের জন্য পুরস্কার পেয়েছেন পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ৬১ সদস্য। মাসিক কর্মদক্ষতার ভিত্তিতে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে তাদের পুরস্কৃত করা হয়। এদের মধ্যে ছয়জন চৌকিদারও রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ঢাকা রেঞ্জ অফিসের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত গত মে- জুনের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় তাদের এ পুরস্কার প্রদান করেন ঢাকা রেঞ্জ ডিআইজি  হাবিবুর রহমান।

মে- জুন মাসে রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার নারায়ণগঞ্জ জেলার পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, মে মাসে শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার মানিকগঞ্জ জেলার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহা. হাফিজুর রহমান এবং জুন মাসে নারায়ণগঞ্জ জেলার গ সার্কেলের  সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আফসার উদ্দিন খাঁন রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার হিসেবে পুরস্কৃত হন।

মে- জুন মাসের মাসিক ও ২য় ত্রৈমাসিক এর ঢাকা রেঞ্জের অধীন জেলার অপরাধ পরিসংখ্যান নিয়ে বিস্তারিত আলোচনাসহ বিভিন্ন মামলা সংক্রান্তে দিক নির্দেশনা দেয়া হয়।

পর্যালোচনায় দেখা যায়, মে মাসে ঢাকা রেঞ্জে ৩ হাজার ৬৭৭ টি মামলা হয়েছে, যা এপ্রিল মাসের তুলনায় ৮৫টি বেশি। জুন মাসে মাদকদ্রব্য উদ্ধার খাতে মামলা হয়েছে এক হাজার ৮৩৮টি। মে মাসের তুলনায় ২৫টি বেশি।

তাছাড়া, অস্ত্র উদ্ধার খাতে আলোচ্য মে মাসে ১২টি মামলা হয়েছে, যা এপ্রিল মাসের তুলনায় ২৪টি মামলা বেশি ও গত বছর মে মাসের তুলনায় ৮টি মামলা কম। এপ্রিল মাসের তুলনায় মে মাসে উদ্ধারখাতে ১৭টি মামলা বৃদ্ধি পেয়েছে। মে মাসে বিজ্ঞ আদালত হতে ১২ হাজার ৯৩৩টি গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রাপ্ত হয়ে ১৩ হাজার ৪৫৬ টি গ্রেফতারি পরোয়ানা অর্থ্যাৎ ৫২৩টি গ্রেফতারি পরোয়ানা বেশি নিষ্পত্তি হয়েছে।

জুন মাসে ঢাকা রেঞ্জে ৩ হাজার ২৭ টি মামলা হয়েছে, যা মে মাসের তুলনায় ৬৫০টি মামলা কম। জুন মাসে মাদকদ্রব্য উদ্ধার খাতে ১ হাজার ৩৫০ টি মামলা হয়েছে। যা জুন মাসের তুলনায় ৫১৩টি কম।

তাছাড়া, অস্ত্র উদ্ধার খাতে আলোচ্য মাসে ১৭টি মামলা হয়েছে। যা মে মাসের তুলনায় ৫টি মামলা কম। মে মাসের তুলনায় জুন মাসে উদ্ধারখাতে ৫২টি মামলা হ্রাস পেয়েছে। জুন মাসে বিজ্ঞ আদালত থেকে ১৪ হাজার ১২৭টি গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রাপ্ত হয়ে ১২ হাজার ৪৩টি গ্রেফতারি পরোয়ানা অর্থ্যাৎ ২ হাজার ৮৪ টি গ্রেফতার পরোয়ানা  নিষ্পত্তি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ডিআইজি, সব শ্রেণি পেশার মানুষকে সঙ্গে নিয়ে জঙ্গিবাদ ও মাদক নিয়ন্ত্রণে কাজ করার জন্য পুলিশ সুপারদের নির্দেশ দেন। পাশাপাশি গ্রেফতারি পরোয়ানা নিষ্পত্তি বৃদ্ধি পাওয়ায় সংশ্লিষ্ট জেলার পুলিশ সুপারদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এছাড়া বর্তমানে বিরাজমান স্বাভাবিক আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে নিষ্ঠা, সততা ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের জন্য রেঞ্জের সব পুলিশ সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান।

সভাপতি সম্মতি ক্রমে অতিরিক্ত ডিআইজি (অপস অ্যান্ড অপরাধ) মো. আসাদুজ্জামান সভার কার্যক্রম পরিচালনা করেন এবং রেঞ্জ এর অধীর ১২টি জেলার পুলিশ সুপারসহ ঢাকা রেঞ্জ অফিসের পুলিশ সুপাররাও উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/ইএ/আরএইচ