ঢাকা-পটুয়াখালী রুটে বিলাসবহুল লঞ্চ, জেনে নিন ভাড়া ও অন্যান্য

ঢাকা-পটুয়াখালী রুটে বিলাসবহুল লঞ্চ, জেনে নিন ভাড়া ও অন্যান্য

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৩১ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নিরাপদ ভ্রমণে নৌপথ সবসময় এগিয়ে। এ কারণে নৌরুটগুলোতে প্রতিনিয়ত চালু হচ্ছে অত্যাধুনিক ও বিলাসবহুল সব লঞ্চ, জাহাজ। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলো আরেকটি নাম সুন্দরবন-১৪।

জানা গেছে, প্রথমবারের চারতলা লঞ্চটি চালু হয়েছে ঢাকা-পটুয়াখালী রুটে। লঞ্চটির সাজসজ্জা, নির্মাণশৈলী ও প্রযুক্তি যেকোনো লঞ্চের চেয়ে নতুন ও নজরকাড়া। এতে রয়েছে ক্যাফে, রেস্টুরেন্ট, ওয়াইফাইসহ বিনোদন ও প্রযুক্তির বিভিন্ন সুবিধা। এছাড়া রয়েছে যাত্রীদের নামাজের জন্য আলাদা স্থান, হৃদরোগে আক্রান্তদের জন্য করোনারি কেয়ার ইউনিট, সিসি ক্যামেরা ও ছয়জন সশস্ত্র আনসার সদস্য।

শনিবার বিকেলে বরিশাল নদীবন্দরে সুন্দরবন-১৪ লঞ্চের উদ্বোধন করেন বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।

সুন্দরবন নেভিগেশন কোম্পানির ম্যানেজার আবুল কালাম ঝন্টু জানান, ১৫০ জন শ্রমিকের দুই বছরের পরিশ্রমে নির্মিত হয়েছে অত্যাধুনিক লঞ্চটি। ২৪১ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৩৬ ফুট প্রস্থের লঞ্চে চারটি ভিআইপি, তিনটি সেমি ভিআইপি, পাঁচটি ফ্যামিলি, ৫৮টি সিঙ্গেল ও ৩৪টি ডবল কেবিন রয়েছে। লঞ্চটির অনুমোদিত যাত্রী ধারণ ক্ষমতা ৭৬০ জন।

তিনি আরো জানান, সুন্দরবন-১৪ লঞ্চটি এ মাসের শেষ দিকে ঢাকা-বগা-পটুয়াখালী রুটে চলাচল শুরু করবে।

সুন্দরবন-১৪ লঞ্চের স্বত্বাধিকারী সাইদুর রহমান রিন্টু জানান, লঞ্চটির হুইল হাউজে সম্পূর্ণ অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সংযোজন করা হয়েছে। এর রাডার-সুকান ‘ইলেক্ট্রো ম্যাগনেটিক’ ও ‘ম্যানুয়াল’ পদ্ধতির। পাশাপাশি নৌযানটিতে জিপিএস সংযুক্ত করা হয়েছে। এতে লঞ্চের এক বর্গ কিলোমিটারের মধ্যে গভীরতা পরিমাপ ও অন্য নৌযানের উপস্থিতি চিহ্নিত করা যাবে। এমনকি ঘন কুয়াশাতেও নির্বিঘ্নে চলাচল করবে সুন্দরবন-১৪।

তিনি আরো জানান, লঞ্চটির ডেকের যাত্রীদের জন্য নিচ তলা, দুই ও তিন তলায় বিছানো রয়েছে মসৃণ কার্পেট। লাগানো হয়েছে দুটি বিশাল এলইডি টিভি। কেবিনগুলোতে দামি আসবাবপত্র ব্যবহার করা হয়েছে। তবে সব শ্রেণির যাত্রী ভাড়া অন্যসব নৌযানের মতোই থাকছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর