Alexa ডিভোর্সের ভয় নেই, এই জন্মমাসের পাত্রীদের বিয়ে করলেই শান্তি

ডিভোর্সের ভয় নেই, এই জন্মমাসের পাত্রীদের বিয়ে করলেই শান্তি

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৪৪ ১২ জুন ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জন্ম, মৃত্যু, বিয়ে এই তিনটি মানুষ উপরওয়ালার কাছ থেকেই নিয়ে আসে। কেউ চাইলেও এর ব্যতিক্রম করতে পারে না। আর জোতিশাস্ত্রেও রয়েছে এর প্রমাণ।

জন্মমাসের সঙ্গে বিয়ে এবং বিয়ের পরে সংসারে সুখের এক অদ্ভুদ মিল রয়েছে। পাত্র/পাত্রীরা বিশেষ কিছু মাসের জাতক/জাতিকাকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিলেই সংসারে সুখ আসবে।

যারা জানুয়ারি মাসে জন্ম নিয়েছেন:
যে সব মহিলার জন্ম জানুয়ারি মাসে, তারা চান তাদের স্বামীর জন্মমাস যেন ২ মাস পরে হয়। এই কারণে যে সব মহিলা জানুয়ারি মাসে জন্মেছেন তারা সব সময় মার্চ মাসে জন্মেছেন এমন পুরুষদের স্বামী হিসেবে বেশি পছন্দ করে থাকেন। কম পছন্দ করেন সেই সব পুরুষকে যারা অক্টোবরে জন্মেছেন। আর একদমই বিয়ে করতে পছন্দ করেন না সেই সব পুরুষকে যারা জুন, অগস্ট ও নভেম্বরে জন্মেছেন।

যে সব পুরুষ জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে জন্মেছেন তারা সেই সব মহিলাকে বেশি করে পছন্দ করেন যারা অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে জন্মেছেন। আর যে মহিলারা জুলাই বা সেপ্টেম্বরে জন্মেছেন তারা একদমই ওই মহিলাদের বিয়ে করতে চান না।

ফ্রেব্রুয়ারিতে জন্ম যাদের:
সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, যে সব মহিলা ফ্রেব্রুয়ারি মাসে জন্মগ্রহণ করেছেন তারা সব সময় বিয়ে করতে চান সেই পুরুষদের যারা ফ্রেব্রুয়ারি বা এপ্রিলে জন্মেছেন। তাদের মধ্যে খুব সামান্য কয়েক জনই বিয়ে করতে চান সেই পুরুষদের যারা জুলাই, অক্টোবর ও ডিসেম্বরে জন্মেছেন।

এছাড়া যে মহিলারা ফ্রেব্রুয়ারিতে জন্মেছেন তাদের ডিভোর্সের হার খুব বেশি। একইভাবে, যেসব পুরুষ জুলাইয়ে জন্মেছেন, তাদের মধ্যে ডিভোর্সের হার বেশি।

যে সব পুরুষ ফ্রেব্রুয়ারিতে জন্মেছেন তারা সেই মহিলাদের বিয়ে করতে বেশি পছন্দ করে থাকেন যারা ফ্রেব্রুয়ারি বা অক্টোবরে জন্মেছেন।

তাৎপর্যপূর্ণ ব্যাপার হল, ফ্রেব্রুয়ারিতে জন্মানো পুরুষদের সঙ্গে মে মাসে জন্মানো মহিলাদের যদি বিয়ে হয় তবে সেই বিয়ের ফলাফল বহু ক্ষেত্রেই ভাল হয় না। এক্ষেত্রে বিবাহ বিচ্ছেদের হার বেশি।

মার্চ মাসে জন্ম যাদের:
যে সব মহিলা মার্চে জন্মেছেন, তাদের সেই অর্থে কোনো নির্দিষ্ট পছন্দ নেই। তারা যে কোনো মাসে জন্মানো পুরুষদের বিয়ে করতে পারেন, তবে সেখানে দুটো শর্ত চাপানো হয়েছে। এই মহিলারা সেই পুরুষদের তেমন পছন্দ করেন না যাদের ফ্রেব্রুয়ারি ও অগস্টে জন্ম।

মার্চে জন্মানো পুরুষকে সব সময় জানুয়ারিতে জন্মানো নারী বিয়ে করতে চান। কিন্তু যে নারী জুলাইয়ে জন্মান, তিনি মার্চে জন্মানো পুরুষকে বিয়ে করতে খুব একটা পছন্দ করেন না। মার্চে জন্মানো পুরুষের সঙ্গে যদি জুলাইয়ে জন্মানো নারীর বিয়ে হয় তা হলে সেখানে বিবাহবিচ্ছেদের হার শতকরা ৮% বেশি।

এপ্রিলে জন্ম যাদের:
যেসব মহিলা এপ্রিলে জন্মগ্রহণ করেছেন তারা বিয়ে করতে চান জুন বা জুলাইয়ে জন্মানো পুরুষদের। এই মহিলারা কিন্তু সেপ্টেম্বর ও নভেম্বরে জন্মানো পুরুষদের বিয়ে করতে সেভাবে আগ্রহী নন।

আবার এপ্রিলে জন্মানো পুরুষেরা ফ্রেব্রুয়ারিতে জন্মানো মহিলাদের বিয়ে করতে বিশেষ ভাবে আগ্রহী। আবার যে মহিলাদের জন্ম জানুয়ারি বা মে-তে, তাদের বিয়ে করতে এপ্রিলে জন্মানো পুরুষেরা অতটা আগ্রহী নন।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস