চাঁদা না দিলেই হামলা বাইয়া হযরত বাহিনীর

চাঁদা না দিলেই হামলা বাইয়া হযরত বাহিনীর

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৫৪ ১ জুন ২০২০   আপডেট: ১৪:৫৭ ১ জুন ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

অপহরণ, চাঁদাবাজি ও মারধরের অভিযোগে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার লালহাড়া গ্রামের বাইয়া হযরত বাহিনীর বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন হয়েছে।

সোমবার সকালে টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন হয়। পরে টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন একই গ্রামের আজম খানসহ গ্রামের কয়েকটি পরিবারের সদস্য। 

সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আজম খান বলেন, আমার এক ভাতিজি গত ২৮ মে বিকেলের দিকে বাড়ির পাশে এক দোকান থেকে কিছু জিনিস কিনে ফিরছিল। তখন এলাকার সন্ত্রাসী বাইয়া হযরতের ছোট ছেলে সজিব তার সহযোগী নিয়ে ভাতিজিকে তুলে নিয়ে যায়।

এ খবর পাওয়ার পর আমার পরিবারের লোকজন সজিবের বাড়িতে গিয়েও তাকে উদ্ধার করতে ব্যর্থ হন। পরে পুলিশকে জানালে রাত ৯ টার দিকে ভাতিজিকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ সজিবকে গ্রেফতার করে। 

এব্যাপারে বাইয়া হযরত, সজিবসহ চারজনকে আসামি করে দেলদুয়ার থানায় মামলা করা হয়। কিন্তু মামলার অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছে। আসামিরা আমার পরিবারের লোকজনদের নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে। 

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, বাইয়া হযরত বাহিনীর লোকজন দীর্ঘদিন ধরে এলাকার অসহায় মানুষদের বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে। চাঁদা দাবি করে না পেলে হামলা করছে। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপরাধে একাধিক মামলা রয়েছে। 
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ