Alexa টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:০১ ১০ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৯:০৫ ১০ নভেম্বর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দিল্লিতে ভারতকে সাত উইকেটে হারিয়ে তিন ম্যাচ সিরিজের শুভসূচনা করে বাংলাদেশ। কিন্তু রাজকোটে আট উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে যায় মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকরা। তাই নাগপুরের তৃতীয় ম্যাচটি পরিণত হয়েছে অঘোষিত ফাইনালে। নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট স্টেডয়িামে সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ।

দুই দলই একটি করে পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামছে। বাংলাদেশ দলে জায়গা হারিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, দলে ঢুকেছেন মোহাম্মদ মিথুন। অপরদিকে ভারতীয় একাদশে ক্রুনাল পাণ্ডিয়ার পরিবর্তে খেলছেন মনিশ পাণ্ডে।

এর আগে ভারতের মাটিতে কখনো সিরিজ জেতেনি বাংলাদেশ। তার ওপর ভারতকে তাদেরই মাটিতে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারাতে পারেনি সফরকারী কোন দল। তাই নতুন আরেকটি ইতিহাস গড়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ যে কোন মূল্যেই সিরিজ জিততে চাইবে। দিল্লির স্মৃতি নাগপুরে ফিরিয়ে আনতে চাইবে বাংলাদেশ।

এমনই ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন বাংলাদেশের কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো। শনিবার ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, সফরের আগের সপ্তাহগুলো কঠিন ছিল, কিন্তু খেলোয়াড়দের কৃতিত্ব প্রাপ্য। গত ১০ দিনে ছেলেরা অসাধারণ প্রাণশক্তি ও ইচ্ছাশক্তি দেখিয়েছে। ওরা নতুন কিছু করতে উন্মুখ। দুই সপ্তাহ আগে কেউই বিশ্বাস করতে চাইতো না, নাগপুরে ১-১ সমতা নিয়ে মাঠে নামার সুযোগ আসবে। যেখানে আছি সেখানে থেকে আমরা খুব খুশি। রোববার আমাদের জন্য দারুণ একটা সুযোগ। আশা করি আমরা সুযোগটা কাজে লাগানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে পারবো।

রাজকোটের মতো ব্যাটিং উইকেট নয় নাগপুরে। বরং নাগপুরের বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে স্পিনাররা গড়ে দিতে পারে পার্থক্য। নাগপুরের পিচ যে রহস্যময়, সেটা জানা দলের সবার। এমনটি হলে বাংলাদেশের জন্য দারুণ সুযোগ তৈরি হবে। কারণ দিল্লির উইকেটের সুবিধা কাজে লাগিয়েই ভারতকে বধ করেছিল বাংলাদেশ।

নাগপুরের এই মাঠে এখন পর্যন্ত ১১টি টি-টোয়েন্টি হয়েছে। মাত্র তিনটি ম্যাচে আগে ব্যাটিং করা দল ছাড়াতে পেরেছে দেড়শো। মোট ৮ বার আগে ব্যাট করা দল এই মাঠে জিতেছে। সব মিলিয়ে বিশ ওভারের ক্রিকেটে এই মাঠের গড় স্কোর ১৫৫।

ভারত: রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল, শ্রেয়াস আইয়ার, রিশাভ পান্ট, শিভম দ্যুবে,  মনিশ পাণ্ডে , ওয়াশিংটন সুন্দর, দীপক চাহার, যুজভেন্দ্র চাহাল, খলিল আহমেদ।

বাংলাদেশ: লিটন দাস, নাঈম শেখ, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিথুন, আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মুস্তাফিজুর রহমান, আল আমিন হোসেন, শফিউল ইসলাম।

ডেইলি বাংলাদেশ/এম