টঙ্গীতে জ্বর-কাশিতে দুই শিক্ষকের মৃত্যু

টঙ্গীতে জ্বর-কাশিতে দুই শিক্ষকের মৃত্যু

গাজীপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৩৩ ৩১ মে ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

গাজীপুরের টঙ্গীতে জ্বর-কাশি নিয়ে দুই শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার  সন্ধ্যায় ও  রোববার ভোরে নিজ নিজ বাড়িতে তাদের মৃত্যু হয়। 

তারা হলেন, টঙ্গী পাইলট স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজের সহকারী অধ্যাপক এ কে এম ফারুক ও টঙ্গী সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যা নিকেতন অ্যান্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক আনিসুর রহমান।

শনিবার গভীর রাতে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম একেএম ফারুকের জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন করেন।

শনিবার সন্ধ্যায় মারা যান সহকারী অধ্যাপক এ কে এম ফারুক এবং রোববার সকালে তার নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে জানা যায় তিনি করোনা পজিটিভ ছিলেন। 

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি চিকিৎসক নাজিম উদ্দিন আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

শনিবার রাতে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের উপস্থিতিতে হাজি কছিম উদ্দিন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে জানাজা শেষে মরকুন সরকারি কবরস্থানে এ  কে এম ফারুককে দাফন করা হয়।

অপরদিকে সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যা নিকেতন অ্যান্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক আনিসুর জ্বর-কাশি নিয়ে রোববার ভোরে নিজ বাসায় মারা যান। রোববার সকালে হাজি কছিম উদ্দিন ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকেরা জানাজা শেষে তার দাফন সম্পন্ন করেন।

সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যা নিকেতন অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ওয়াদুদুর রহমান জানান, কয়েকদিন ধরে জ্বর ও ঠান্ডায় ভুগছিলেন শিক্ষক আনিস। শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় ডাক্তারের চেম্বারে গিয়ে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরেন তিনি। রাতে অবস্থার অবনতি ঘটলে ভোরে তার মৃত্যু হয়।

সিভিল সাজন মো. খায়রুজ্জামান জানান, এসব মৃত্যুর বিষয়ে তার জানা নেই। এ ব্যাপারে খোঁজ খবর নিচ্ছেন তিনি। 

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, জানাজা ও দাফনের ঝামেলা এড়াতে করোনায় আক্রান্ত রোগী ও তার স্বজনরা খবরটি সিটি কর্পোরেশনে ও সরকারি কোনো সংস্থাকে জানানো হয় না। তাই অনেকেই এ খবর সরকারিভাবে জানানো সম্ভব হয় না। অনেক সময় কেউ করোনাভাইরাস নিয়ে মারা গেলে স্বজনরা লাশ নিয়ে টালবাহানা করে। এতে করে আমাদের ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দাফন সম্পন্ন করতে হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ