জ্যান্ত অবস্থায় শিশু মাটিচাপা! কান্নার আওয়াজে উদ্ধার

জ্যান্ত অবস্থায় শিশু মাটিচাপা! কান্নার আওয়াজে উদ্ধার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:২১ ২৮ মে ২০২০   আপডেট: ১৯:২৩ ২৮ মে ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাখে আল্লাহ মারে কে? আবারো এক অমানবিক দৃশ্য দেখা গেলো ভারতের উত্তরপ্রদেশে। গ্রামে ঝোঁপঝাড়ের পাশে থাকা কাদামাটির নিচ থেকে উদ্ধার করা হলো এক সদ্যোজাতকে। জীবন্ত অবস্থাতেই শিশুটিকে সেখানে পুঁতে রাখা হয়েছিলো বলে ধারনা করা হচ্ছে।

শিশুটিকে কবর দিয়ে চলে যাওয়া হলেও তার একটি পায়ের পাতা কোনোভাবে মাটির উপরে থেকে যায়। সেই সঙ্গে কাদামাটির তলায় চাপা পড়া অবস্থায় চিৎকারে সেও নিজের অস্তিত্ব জানান দিচ্ছিল, যা কানে গিয়ে পৌঁছায় স্থানীয় মানুষজনের।

শিশুর কান্নাকে অনুসরণ করে এলাকার মানুষজন সেখানকার একটি বাড়ির পাশে থাকা ঝোপঝাড়ের কাছে গিয়ে সন্ধান শুরু করে। কাদা এবং বালিতে একাকার ওই এলাকায় সন্ধান চালাতে চালাতে এলাকাবাসি দেখতে পায় সদ্যোজাত শিশুটির মাটির উপরে বেরিয়ে থাকা পায়ের পাতায়। তারপরেই তাড়াতাড়ি কাদামাটির তলা থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান গ্রামবাসী।

উত্তরপ্রদেশের সিদ্ধার্থ নগরের সোনৌড়া গ্রামে কাদামাটির নিচ থেকে উদ্ধার করা হয় সদ্যোজাত শিশুটিকে

উত্তরপ্রদেশের সিদ্ধার্থ নগর জেলার সোনৌড়া গ্রামের ওই ঘটনায় স্থানীয় মানুষজন থেকে পুলিশ প্রশাসন, সকলেই নড়েচড়ে বসেছে। জানা গেছে, উদ্ধার হওয়া শিশুটি একটি ছেলে।

নবজাতককে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা তাকে পরিষ্কার করে নানারকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন। শিশুটির শরীরে করোনা সংক্রমণ আছে কিনা সেই পরীক্ষাও করা হয়। যদিও রিপোর্টে উদ্বেগজনক কিছু মেলেনি।

হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ওই নবজাতকের অবস্থা এখন স্থিতিশীল। তবে তার পেটের মধ্যে কিছু কাদামাটি ঢুকে গেছে বলে মনে করা হচ্ছে। শিশুটির প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করা হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এস