‘জীবন প্রদীপটা কেউ নিভিয়ে দেয়ার চেষ্টায় ব্যাকুল’

‘জীবন প্রদীপটা কেউ নিভিয়ে দেয়ার চেষ্টায় ব্যাকুল’

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৪:১৩ ১০ জুলাই ২০২০  

ভুক্তভোগী নিজাম উদ্দীন (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

ভুক্তভোগী নিজাম উদ্দীন (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

‘জীবন প্রদীপটা নিভে যাওয়ার আগেই হয়তো কেউ নিভিয়ে দেয়ার চেষ্টায় ব্যাকুল। মোটরসাইকেল নিয়ে যাবার পথে পড়ে গিয়েছিলাম দুষ্কৃতিকারীদের হাতে। আল্লাহর অশেষ রহমতে বেঁচে ফিরেছি।’ 

ডেইলি বাংলাদেশকে এ কথাগুলো বলছিলেন নোয়াখালীর বাসিন্দা নিজাম উদ্দীন। বর্তমানে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত থাকায় চট্টগ্রামে বসবাস করে আসছেন তিনি।

নিজাম উদ্দীন জানান, বুধবার বিকেলে মোটরসাইকেলযোগে কর্মস্থল জিইসি থেকে আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভার হয়ে চাদগাঁও যাচ্ছিলেন তিনি। একপর্যায়ে মুরাদপুর এলাকায় পৌঁছালে এক জাতীয় সুতায় বাধাগ্রস্ত হয়ে হারিয়ে ফেলেন মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ। এ সময় মাথায় হেলমেট থাকায় কিছুটা রক্ষা পেলেও ধারালো সুতায় কেটে যায় তার গলা। 

তিনি আরো জানান, ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে এ ‘সুতা পদ্ধতি’ অবলম্বন করছে ছিনতাইকারীরা। মোটরসাইকেল চালককে একা পেলে তারা এ পদ্ধতি ব্যবহার করে। এতে টার্গেটকৃত ব্যক্তি আহত হলে তারা সবকিছু লুট করে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে কথা বললে পাঁচলাইশ থানার ওসি আবুল কাশেম ভূঁইয়া বলেন, বিষয়টি এরইমধ্যে আমাদের নজরে এসেছে। খতিয়ে দেখে শিগগিরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম