জামায়াত শিবির নিষিদ্ধ চায় ছাত্রলীগ

জামায়াত শিবির নিষিদ্ধ চায় ছাত্রলীগ

সাইফুল ইসলাম ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:০৬ ৩ মার্চ ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

চলতি বছরের মধ্যেই জামায়াত শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ চায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। গত দুই দিনে নোয়াখালী ও খুলনায় ছাত্রলীগের দুই নেতা নিহত হওয়ার প্রতিবাদে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নেতারা এই দাবি জানান। এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী বিক্ষোভ সমাবেশও করে ছাত্রলীগ।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় ছাত্রশিবিরের সশস্ত্র হামলায় সোমবার ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল ইসলাম মারা যান। একই দিন খুলনার কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাদিউজ্জামান রাসেলকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। দু’টি হত্যাকাণ্ডের জন্যই শিবিরকে দায়ী করে বিতর্কিত এই ছাত্র সংগঠনটিকে নিষিদ্ধ করার দাবি তোলে ছাত্রলীগ।  

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান বলেন, ছাত্রলীগের কোনো কর্মী মারা গেলে সবাই নিশ্চুপ হয়ে যায়। কোথাও কোনো শব্দ শোনা যায় না। শিবিরের সন্ত্রাসীরা শিক্ষাঙ্গনকে অস্থিতিশীল করতে চায়। তাদের চাপাতির কোপে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। এই বছরের মধ্যে জঙ্গি শিবির নিষিদ্ধ চাই। এদের রাজনীতি নিষিদ্ধ না হলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

নাহিয়ান আরো বলেন, ছাত্রলীগ আছে বলেই দেশের শিক্ষার পরিবেশ এত সুন্দর। জামায়াত-শিবির ফিরে আসলে এই পরিবেশ আর থাকবে না। দেশে নতুন করে জঙ্গিবাদের উত্থান হবে।

সারাদেশ থেকে শিবির ক্যাডারদের ধরে পুলিশের হাতে তোলে দেয়ার জন্য ছাত্রলীগ কর্মীদের আহ্বানও জানান আল নাহিয়ান খান।

সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতা-কর্মী দেশের সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের জামায়াত-শিবির ভয় পায়। এজন্য সুযোগ পেলেই তারা আমাদের উপর হামলা করে। আমাদেরকে আক্রান্ত করে। এটি আর হতে দেয়া যাবে না। শিবিরের খুনের রাজনীতি দেশের মাটি থেকে নিষিদ্ধ করতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, এই ঘটনার চূড়ান্ত প্রতিশোধ নিতে হবে। ঢাবির ক্যাম্পাসে একজন শিবিরকেও যদি পাওয়া যায় তাকে তুলোধুনা করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবিরের সব ধরনের কার্যক্রম নিষিদ্ধ করা হবে। এরপরও যদি কেউ শিবিরকে আশ্রয় দেয়, প্রশ্রয় দেয় তাহলে তাকেও এর জাবাব দিতে হবে।

ডাকসুর এজিএস সাদ্দাম হোসেন বলেন, একদিনের মধ্যে হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। জঙ্গিবাদী রাজনীতি কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেয়া যাবে না। এদেরকে নিষিদ্ধ না করা পর্যন্ত ছাত্রলীগের একজন কর্মীও ঘরে ফিরে যাবে না।

এর আগে, শিবিরের বিচার দাবিতে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ছাত্রলীগ একযোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএএম