জাপানি প্রমোদতরীতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪৫৪

জাপানি প্রমোদতরীতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪৫৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:২১ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জাপানের ইয়োকোহামা বন্দরে কোয়ারেন্টাইনে রাখা প্রমোদতরী ডায়মন্ড প্রিন্সেসে আরো ৯০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এরইমধ্যে প্রমোদতরীটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪৫৪ জনে পৌঁছেছে। আক্রান্তদের বর্তমানে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

প্রমোদতরীটি থেকে সোমবার ৩৪০ মার্কিনীকে দেশে ফিরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়া কানাডাও তাদের নিজ নাগরিকদের জাহাজ থেকে ফিরিয়ে নেয়ার কাজ করছে।

এদিকে জাপান সরকারের বিভিন্ন দফতর একত্রিত হয়ে জাহাজটিতে মোট দুই হাজার আইফোন পাঠিয়েছে। এসব ফোনেই লাইনঅ্যাপ প্রি-ইনস্টল আছে। অ্যাপ ব্যবহারের মাধ্যমে মূলত জাপানের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হবে। 

জাপানি গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, প্রায় তিন হাজার ৭০০ আরোহী নিয়ে চীনের উপকূল অতিক্রম করে ডায়মন্ড প্রিন্সেস নামের বিশাল প্রমোদতরী। যার মধ্যে প্রায় ৩০০ যাত্রীকে পরীক্ষা করার পর ওই ১০ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। গত মাসে ওই প্রমোদতরীতে থাকা হংকংয়ের ৮০ বছর বয়সী এক ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হওয়ার পর সেটিকে বন্দরে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এরপরেই আরোহীদের পরীক্ষা করা শুরু হয়। 

জানা গেছে, করোনাভাইরাসে চীনে আরো ৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো এক হাজার ৮৬৮ জনে। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন ৭২ হাজারেও বেশি মানুষ। এরমধ্যে এখনো পর্যবেক্ষণে রয়েছেন আরো তিন লক্ষাধিকেরও বেশি মানুষ ও প্রায় দুই হাজার স্বাস্থ্যকর্মী।

বিশ্লেষকদের মতে, বর্তমানে থাইল্যান্ড, তাইওয়ান, জাপান, যুক্তরাজ্য, ইসরায়েল, দক্ষিণ কোরিয়া এবং ভারতসহ বেশকিছু দেশে অজ্ঞাত এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা গেছে। তাছাড়া আতঙ্কে রয়েছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তানও। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রেও ভাইরাসে আক্রান্ত এক ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্তদের সবাই সম্প্রতি চীনে ভ্রমণ করেছেন কিংবা সেখানে বসবাস করেন।

উল্লেখ্য, সিঙ্গাপুরে কয়েকজন বাংলাদেশির করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বর্তমানে তারা দেশটিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। তাইওয়ানে নতুন করে আরো দুজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ কারণে বাতিল করা হয়েছে, টোকিওর ম্যারাথন প্রতিযোগিতা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ