জননিরাপত্তা আইনে এবার বন্দি হলেন জম্মু-কাশ্মীরের শাহ ফয়সাল

জননিরাপত্তা আইনে এবার বন্দি হলেন জম্মু-কাশ্মীরের শাহ ফয়সাল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:১০ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৫:২২ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ভারতে ব্যাপক বিতর্ক সৃষ্টিকারী জননিরাপত্তা আইনে জম্মু-কাশ্মীরের আরেক জনপ্রিয় রাজনৈতিক নেতা শাহ ফয়সালকে বন্দি করা হয়েছে।

কাশ্মীরের প্রথমসারীর অনেক রাজনীতিকদের মতো ফয়সালও গত বছরের আগস্ট থেকে বন্দি রয়েছেন। শুক্রবার রাতে তাঁকে একটি চিঠি দিয়ে জানানো হয় যে কাশ্মীরের তিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ, ওমর আবদুল্লাহ ও মেহবুবা মুফতির মতো তিনিও জননিরাপত্তা আইনে বন্দি হয়েছেন।

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা বাতিলের পর গত ১৪ আগস্ট আটক করা হয় ফয়সালকে।

জননিরাপত্তা আইনের এই কঠোর ধারায় কোনো ব্যক্তিকে বিচার ছাড়াই দু’বছর পর্যন্ত আটকে রাখা যায়। এতদিন পর্যন্ত এই আইন মূলত বিচ্ছিন্নতাবাদীদের বিরুদ্ধেই প্রয়োগ করা হত। কিন্তু উপত্যকা থেকে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বাতিলের সময় থেকে তা প্রথমসারীর রাজনীতিকদের বিরুদ্ধেও প্রয়োগ করা হয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করে রাজ্যটিকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের পদক্ষেপের অন্যতম সমালোচক এই শাহ ফয়সাল। পেশায় তিনি একজন অভিজ্ঞ চিকিৎসক। গত বছর তিনি রাজনীতিতে যোগ দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন।

এর আগে ওই একই আইনে জম্মু ও কাশ্মীরের আরও কয়েকজন নেতাকে বন্দি করা হয়। তারা হলেন- আলি মুহাম্মদ সাগর, নঈম আক্তার, সারতাজ মাদানি এবং হিলাল লোন।

শাহ ফয়সাল ২০০৯ সালে ইন্ডিয়ান সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় জম্মু-কাশ্মীর থেকে প্রথম ব্যক্তি হিসাবে তালিকার শীর্ষস্থান দখল করেছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী