ছোট দেশের বড় তারকারা

ছোট দেশের বড় তারকারা

আসাদুজ্জামান লিটন, সেন্ট্রাল ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৫৯ ৪ এপ্রিল ২০২০  

ছোট দেশের বড় তারকারা

ছোট দেশের বড় তারকারা

পৃথিবীতে সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলার নাম বললে প্রথমেই আসবে ফুটবলের কথা। আর অন্যদের তুলনায় বড় দেশের ফুটবলারদেরই সবাই বেশি চেনে। খ্যাতির দিক থেকে এগিয়ে থাকে বড় দলের তকমা পাওয়া খেলোয়াড়রাই। তবে এমন কিছু ফুটবলার রয়েছেন, যারা ছোট দেশ থেকে উঠে এলেও নিজের আলোয় রাঙিয়েছেন সবাইকে। হয়ে উঠেছেন তারকা। ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের জন্য আজ থাকছে এমনই কিছু ছোট দেশের বড় তারকার গল্প।

জর্জ উইয়াহ

জর্জ উইয়াহ

আফ্রিকার দেশ লাইবেরিয়া ফুটবলের দিক তো বটেই, বিশ্বের প্রেক্ষাপটেই খুব বেশি পরিচিত দেশ নয়। এমন একটি দেশ থেকে যদি কেউ একবার ব্যালন ডি'অর, তিনবার আফ্রিকান প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার এবং ইউরোপের সেরা ৫ লিগের একটি দলের হল অব ফেমে জায়গা পান তবে যে কারো চোখ কপালে উঠতে বাধ্য। অথচ এই দুঃসাধ্য কাজটিই সম্ভব করেছিলেন জর্জ উইয়াহ। আফ্রিকার ইতিহাসের একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে ব্যালন ডি'অর জিতেছেন তিনি। ক্লাব ক্যারিয়ারে মোনাকো, প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি), এসি মিলান, চেলসি, ম্যানচেস্টার সিটি ও মার্শেইয়ের হয়ে খেলেছেন। সফলতার মুখ দেখেছেন সবখানেই। সম্ভবত জর্জ উইয়াহই একমাত্র খেলোয়াড়, যিনি নিজ দেশের হয়ে খেলেছেন, কোচ ছিলেন, দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেছেন এবং স্পন্সরও করেছেন! বর্তমানে লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশের উন্নতিতে কাজ করে যাচ্ছেন উইয়াহ।

জর্জ বেস্ট

জর্জ বেস্ট

ফুটবল ইতিহাসে কিংবদন্তিদের কাতারেই ধরা হয় জর্জ বেস্টকে। তবে তিনি নর্দান আয়ারল্যান্ডের মতো ছোট ও অবহেলিত এক দেশ থেকে উঠে এসেছিলেন। জাতীয় দলের হয়ে মাত্র ৩৭টি ম্যাচ খেললেও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে দীর্ঘসময় মাঠ মাতিয়েছেন বেস্ট। ১৯৬৮ সালে এই কিংবদন্তি ইউরোপিয়ান কাপ জয়ের পাশাপাশি ব্যালন ডি'অর ও ইউরোপিয়ান প্লেয়ার অব দ্য ইয়ারের খেতাব লাভ করেন। 

গ্যারেথ বেল

গ্যারেথ বেল

ইংল্যান্ডের পাশের দেশ ওয়েলস থেকে উঠে আসা ফুটবলার গ্যারেথ বেলকে সারাবিশ্ব চেনে। স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের এ ফরোয়ার্ড এর আগে রেকর্ড ট্রান্সফার ফিতে দলবদল করেছিলেন। জাতীয় দলের প্রধান ভরসাও বেল। তার নেতৃত্বেই প্রথমবারের মতো ইউরোতে কোয়ালিফাই করে ওয়েলস। বর্তমানে দেশটির ইতিহাসের সেরা ফুটবলার হিসেবে বেলকে আখ্যায়িত করা হয়। 

হেনরিখ মিকিতারিয়ান

হেনরিখ মিকিতারিয়ান

ইউরোপের দেশ আর্মেনিয়ার ফুটবল ঐতিহ্যে বলার মতো তেমন কিছুই নেই। এখনো পর্যন্ত কখনোই বিশ্বকাপ ফুটবল বা ইউরোর মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেনি দেশটি। তবে আর্মেনিয়ায় এক নামে পরিচিত হেনরিখ মিকিতারিয়ান। ২৬ বছর বয়সী এ মিডফিল্ডার এরইমধ্যে জাতীয় দলের হয়ে ৫৩ ম্যাচে ১৬ গোল করে দেশের ইতিহাসে টপ স্কোরার হয়ে গেছেন। ক্লাব ক্যারিয়ারে বিভিন্ন দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ৭টি ট্রফি জিতেছেন মিকিতারিয়ান।

পিয়েরে এমরিক অউবামেয়াং

পিয়েরে এমরিক অউবামেয়াং

আফ্রিকার অত্যন্ত গরীব একটি দেশ গ্যাবন। ১৬ লাখ জনসংখ্যার দেশটিতে মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণ করাই অনেকের কাছে স্বপ্নের মতো। তবে এমন জায়গা থেকেই উঠে এসেছেন পিয়েরে এমরিক অউবামেয়াং। ফ্রান্সের অনূর্ধ্ব-২১ দলের হয়ে খেলেছিলেন অউবামেয়াং। তাদের হয়েই জাতীয় দলে খেলার সুযোগ থাকলেও শেষ পর্যন্ত মাতৃভূমি গ্যাবনের হয়ে খেলাই বেছে নেন এই ফরোয়ার্ড। মূলত অসাধারণ স্পিডের পাশাপাশি দুর্দান্ত ফিনিশিং তার প্রধান শক্তি। জাতীয় দলের হয়ে এখন পর্যন্ত ৪৪ ম্যাচে ১৭ গোল করেছেন এই আর্সেনাল তারকা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এম