ছেলের সাফল্যে খুশি হলেও চিন্তিত চা-দোকানি বাবা

ছেলের সাফল্যে খুশি হলেও চিন্তিত চা-দোকানি বাবা

জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:০৫ ৫ জুন ২০২০  

এসএসসিতে গোল্ডেন এ প্লাস প্রাপ্ত লিয়ন

এসএসসিতে গোল্ডেন এ প্লাস প্রাপ্ত লিয়ন

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর শহরের হাসপাতাল রোডের চা দোকানি আহসান কবির ও শাহনাজ পারভীন দম্পতির ছেলে শামীম আহম্মেদ লিয়ন এবারের এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছে।

উপজেলা শহরের আদর্শ শাপলাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে লিয়ন এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।

আহসান কবির বলেন, আমার একমাত্র সন্তান লিয়নের ফলাফলে আমি অনেক খুশি হয়েছি। ছেলে আমার স্বপ্ন পূরণ করেছে। আমার আয়ের একমাত্র উৎস একটি ছোট চায়ের দোকান। সেখান থেকে যা আয় হয়, তা দিয়ে ছেলের লেখাপড়ার পেছনে ব্যয় করি, আর সংসার চালাই। 

ছেলের ইচ্ছা সে ইঞ্জিনিয়ার হবে। কিন্তু ইঞ্জিনিয়ার বানাতে হলে তো ভালো কলেজে ভর্তি করতে হবে। আমার তো আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। এখন আমি কি করব কিভাবে টাকা জোগাড় হবে তা বুঝে উঠতে পারছি না। 

ছেলে গোল্ডেন এ প্লাস পাওয়ায় ভীষণ আনন্দের মাঝেও চিন্তায় পড়েছেন চা দোকানি কবির। কিভাবে ছেলেকে ভালো কলেজে ভর্তি করবেন এবং ভর্তির টাকাই বা কিভাবে জোগাড় করবেন? তার মনে শুধু এসব প্রশ্নই ঘোরপাক খাচ্ছে।

জীবননগর আদর্শ শাপলাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রকিবুল ইসলাম বলেন, দরিদ্র চা দোকানির ছেলে লিয়ন অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র, সে আমার বিদ্যালয়ের গর্ব। লিয়ন পিএসসি ও জেএসসি পরিক্ষায় ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছিল। আমার বিশ্বাস সে ভবিষ্যতে আরো অনেক ভালো করবে। 

এসএসসি পরীক্ষা স্বপ্ন পুরণের প্রথম ধাপ। ভবিষ্যত সফলতার জন্য তাকে আরো অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। জীবনের সব বাধা অতিক্রম তাকে উচ্চ শিক্ষার গন্ডি পার হতে হবে। লিয়নদের মতো হতদরিদ্র মেধাবীরা সবার দোয়া আর সহযোগিতা না পেলে অকালেই ঝরে পড়তে পারে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ