Alexa ছাত্রী নিয়ে দুই শিক্ষকের মারামারি, ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ!

ছাত্রী নিয়ে দুই শিক্ষকের মারামারি, ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ!

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৩৪ ২২ অক্টোবর ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নওগাঁর মান্দায় এক ছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ানো নিয়ে দুই শিক্ষকের মধ্যে মারামারি হয়েছে। এ ঘটনায় একজনের হাত ভেঙে গেছে।

তারা হলেন- ওই উপজেলার ছোট চকচম্পক বালিকা বিদ্যালয়ের বিএসসি শিক্ষক আমিনুল ইসলাম ও কৃষি শিক্ষক হেলাল উদ্দিন। ওই ঘটনায় বিএসসি শিক্ষক আমিনুল ইসলামের ডান হাত ভেঙে গেছে। তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

শনিবার দুপুরে ওই বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক জানান, ওই ছাত্রী এর আগে কৃষি শিক্ষক হেলাল উদ্দিনের কাছে প্রাইভেট পড়তো। কিন্তু হঠাৎ করে কেন বিএসসি শিক্ষক আমিনুল ইসলামের কাছে পড়ছে? বিষয়টি জানা প্রয়োজন। তাহলেই মূল ঘটনা সামনে আসবে।

সোমবার আহত শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ করেছেন ওই ছাত্রীর মা। তিনি বলেন, আমিনুল ইসলাম প্রাইভেট পড়ানোর সময় আমার মেয়ের শরীরে আপত্তিকরভাবে স্পর্শ করেন। এছাড়া প্রাইভেটের টাকা মওকুফ, নতুন জামা কিনে দেয়াসহ বিভিন্ন কৌশলে অনৈতিক প্রস্তাব দেন তিনি। আমার মেয়ে রাজি না হলে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন ওই শিক্ষক।

একই এলাকার ব্যবসায়ী রথিন সরকার জানান, ওই শিক্ষকের চরিত্র ভালো না। তিনি প্রাইভেট পড়ানোর সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন। তার বিরুদ্ধে প্রায়ই অভিযোগ করে শিক্ষার্থীরা।

প্রধান শিক্ষক রহিদুল ইসলাম বলেন, ওই স্কুলছাত্রীর মা আমাকে বিষয়টি জানিয়েছেন। আমি সমাধানের চেষ্টায় করেছি। শিক্ষক আমিনুল ইসলাম চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকায় তার সঙ্গে কথা বলা যায়নি।

মান্দা থানার ওসি মোজাফফর হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীকে অনৈতিক প্রস্তাব ও ধর্ষণের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। অন্যায়ভাবে কাউকে হয়রানি করা হবে না।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর