চিতলমারীতে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী দিয়ে চলছে পরিসংখ্যান অফিস

চিতলমারীতে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী দিয়ে চলছে পরিসংখ্যান অফিস

চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৩৮ ১৬ জুলাই ২০২০  

চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মো. আব্দুল আজিজ একাই অফিসের সব কাজ সামলাচ্ছেন

চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মো. আব্দুল আজিজ একাই অফিসের সব কাজ সামলাচ্ছেন

বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলা পরিসংখ্যান অফিসে লোকবল সংকট থাকায় একজন চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী দিয়ে চলছে সব কাজ। 

এতে অফিসে বিভিন্ন কাজে আসা লোকজনকে পড়তে হচ্ছে নানা সমস্যায়। এ সংকট নিরসনের জন্য সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন এলাকাবাসী।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলা পরিসংখ্যান অফিসে চরম লোকবল সংকট রয়েছে। গত ৫ বছর ধরে অফিসের কর্মকর্তার পদ শূন্য রয়েছে। পাশাপাশি সহকারী কর্মকর্তা, মাঠকর্মী ও কম্পিউটার ম্যান ছাড়াই একজন চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী একাই অফিসের সব কাজ সামলাচ্ছেন। 

এ পরিস্থিতিতে উপজেলার আদমশুমারি, কৃষি শুমারিসহ অন্যান্য স্কুল-কলেজের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংগ্রহের কাজ স্থবির হয়ে পড়েছে। দ্রুত এ অফিসে লোকবল বাড়ানো না হলে আগামী আদম শুমারিকালে সার্বিক কর্মকাণ্ড নানাভাবে ব্যাহত হবে বলে মনে করছেন অনেকে। 
 
উপজেলা পরিসংখ্যান অফিসের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মো. আব্দুল আজিজ জানান, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে তিনি এখানে যোগদান করেছেন। একাই এ অফিসটি সামলান। গত ৫ বছর ধরে অফিসের কর্মকর্তাসহ অন্যান্য পদ শূন্য রয়েছে। এতে অফিসের কাজে আসা লোকজনকে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। একার পক্ষে সমস্ত কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি। 
 
এ ব্যাপারে জেলা পরিসংখ্যান অফিসার সুজিৎ কুমার ঘোষ জানান, লোক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছে। এ সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে