চাঁদপুরে দেদারছে বাইলার রেণু নিধন

চাঁদপুরে দেদারছে বাইলার রেণু নিধন

চাঁদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:২৫ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৭:৩২ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চাঁদপুরে দেদারছে নিধন হচ্ছে বাইলা মাছের রেণু। নিধনের পর চাঁদপুর শহরসহ বিভিন্ন উপজেলায় বাইলার গুঁড়া নামে রেনু পোনা বিক্রি করা হচ্ছে। 

চাঁদপুর শহরসহ বিভিন্ন উপজেলার বাজার, পাড়া-মহল্লায় ও অলিতে-গলিতে ভ্যান এবং বড় গামলা করে এক শ্রেণির অসাধু মাছ বিক্রেতারা রেণু পোনা বিক্রি করে আসছে। এভাবে বাইলার পোনা বিক্রি যেন দেখেও না দেখার ভান করছে জেলা মৎস্য কর্মকর্তারা।

চাঁদপুরে নদীগুলোতে রেণু পোনা নিধনের মহোৎসব চলছে। প্রশাসনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে নদীতে প্রতিদিন অন্তত কয়েকশ’জেলে রেণু পোনা মাছ নিধন করছে।  

 
এসব এক-দেড় ইঞ্চি সাইজের বিভিন্ন প্রজাতির রেণু পোনা প্রতি কেজি একশ’ থেকে দেড়শ’ টাকা কেজি দরে বিক্রি করছে। দাম কম হওয়ায় ক্রেতারা ব্যাগ ভরে এ মাছ কিনে নিচ্ছে। রেণু ও ছোট পোনা মাছ ধরা অপরাধ স্বীকার করলেও সরকারি কোনো অনুদান না থাকায় পেটের টানেই বাধ্য হচ্ছেন বলেই মাছ শিকার করছেন বলে জানান জেলেরা।

জামাল হোসেন ও মুসা জানান, মাছ ধরেই জীবন চলে। মাছ না ধরলে কি খেয়ে বাঁচব। মাছ ধরা প্রধান পেশা। নদীতে জাল ফেলে যখন যে মাছ পাই, তাই বিক্রি করে জীবিকা চলে। এসব রেনু পোনা ধরা ঠিক না, তারপরও পেটের দায়ে মাছ ধরতে হয়।

পুরানবাজার পাইমারি স্কুলের শিক্ষক নাছির উদ্দিন জানান, রেণু পোনা নিধনের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসন, মৎস্য বিভাগ ও কোস্টগার্ডের কোনো অভিযান দেখা যায়নি। রেণু পোনা নিধন বন্ধ করতে হবে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুল বাকী বলেন, জেলেরা যেসব মাছের পোনা নিধন করছে, তা দেখে চোখের পানি ধরে রাখা যায় না। জেলা প্রশাসন নদীতে অভিযান পরিচালনা করছে। কিছু অসাধু জেলে ও ব্যবসায়ী এসব কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে আরো কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে