চট্টগ্রাম নগরীতে ছয়দিনে ছয় খুন!
Best Electronics

চট্টগ্রাম নগরীতে ছয়দিনে ছয় খুন!

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:০১ ১৫ মে ২০১৯   আপডেট: ২১:০৫ ১৫ মে ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

খুনের মোটিভ উদ্ধারসহ দ্রুত সময়ের মধ্যে আসামি গ্রেফতার এবং অভিযুক্ত হত্যাকারীকে ক্রসফায়ার দিয়েও চট্টগ্রাম মহানগরীতে বন্ধ করা যাচ্ছে না হত্যাকাণ্ড। ১০ মে থেকে ১৪ মে চারটি ঘটনায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে পুলিশের সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে এক হত্যাকারী নিহত হয়েছেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. জহিরুল ইসলাম এর তথ্যে জানা গেছে, ১০ মে আকবরশাহ থানা এলাকায় সত্যজিৎ নামের নেশাগ্রস্ত এক যুবক চারজনকে কুপিয়ে আহত করে। এতে ১৪ মে দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আহত শান্তি নন্দী। একই ঘটনায় এ পর্যন্ত নিহত হলেন দুইজন। এরআগে ১৪ মে সকালে নগরীর ডবলমুরিং থানার হাজিপাড়া এলাকায় দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে নিহত হয় রাজু নামে এক রিকশাচালক।

অপর ঘটনাটি ঘটে নগরীর পাঁচলাইশ থানার মুরাদপুর এলাকায়। পল্লী চিকিৎসক সত্যজিৎ ওইদিন সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় মাদকাসক্ত হয়ে নিজের বাড়িতে আগুন লাগান। পরে সড়কে এসে দা দিয়ে কোপানো শুরু করেন। এ সময় সন্ধ্যা রাণী নামে একজন নিহত হন। একইদিন রাত ৯টায় মুরাদপুর পিলখানায়  এলাকায় মোস্তাক আহমদ নামে নিহত হন একজন। আড্ডা দেয়া নিয়ে মোস্তাক আহমদের ছেলের সঙ্গে শাহাদাত নামে এক যুবকের বাকবিতণ্ডা হয়। এর রেশ ধরেই মোস্তাক আহমদকে ছুরিকাঘাত করে শাহাদাত। ১২ মে রাতে নগরীর বাকলিয়া থানা এলাকায় ঘরে ঢুকে ভাইকে না পেয়ে বোন বুবলীকে গুলি করে হত্যা করে  শাহ আলম নামে এক মাদক ব্যবসায়ী। ওই রাতেই অভিযুক্ত শাহ আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে পুলিশের সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে নিহত হন শাহ আলম।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নগর পুলিশ কমিশনার মাহবুবর রহমান বলেন, সামাজিক ও পারিবারিক অস্থিরতা থেকেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে। ঘটনার পরপরই খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে পুলিশ কারণসহ অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে।

ডেইল বাংলাদেশ/জেডএম

Best Electronics