Alexa চট্টগ্রামে চোর চক্রের ১১ জন ধরা

চট্টগ্রামে চোর চক্রের ১১ জন ধরা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৪৭ ২৫ আগস্ট ২০১৯   আপডেট: ১৮:০৫ ২৫ আগস্ট ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চট্টগ্রামে একটি আবাসিক হোটেল থেকে সংঘবদ্ধ চোর চক্রের মূল হোতাসহ ১১ জন চোরকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের থেকে দুটি এলজি, একটি লোহার রড কাটার যন্ত্র, চারটি কার্তুজ ও একটি রড উদ্ধার করা হয়।

রোববার দুপুরে সিএমপির দক্ষিণ বিভাগের উপ-কমিশনার এসএম মেহেদী হাসান এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

আটকরা হলেন- মো. লিয়াকত হোসেন, মো. আকরাম, মো. হানিফ, মো. তৌফিক, মো. মাসুম, নয়ন, মিলন, কামাল হোসেন, জামাল, ভূসি কামাল।

উপ-কমিশনার এসএম মেহেদী আরো জানান, শনিবার রাতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। চট্টগ্রামে সংগঠিত দুটি চুরির ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে এই চক্রটির সন্ধান পায় সিএমপির কোতোয়ালী থানা পুলিশ। 

সংঘবদ্ধ চক্রটি তিনটি ধাপে চুরির ঘটনা ঘটায়। প্রথম ধাপে চক্রের প্রধান হানিফ বিভিন্ন মার্কেট, বাণিজ্যিক এলাকা ঘুরে চুরির জন্য দোকান বা অফিস টার্গেট করে। 

দ্বিতীয় ধাপে হানিফের টার্গেট করা দোকান বা অফিসগুলো রেকি করে। এ সময় সে দোকানগুলোতে কি পরিমাণ অর্থ থাকতে পারে, দোকানে কিভাবে প্রবেশ করতে হবে, চুরি করে পালিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হবে কি না, চুরি করতে কি ধরনের সরঞ্জাম ও লোকবল লাগবে এসব পর্যবেক্ষণ করে গ্রীন সিগন্যাল দেয়।

এ চক্রের সেকেন্ড কমান্ড দেয় কামাল। তার গ্রীন সিগন্যাল পেলেই তৃতীয় ধাপের কাজ শুরু হয়। এ ধাপে প্রয়োজনীয় লোকজন ও সরঞ্জাম নিয়ে সুবিধাজনক সময়ে চুরি করতে যায় চক্রের বাকি সদস্যরা। চক্রটি নয় থেকে ১০টি দলে ভাগ হয়ে এক যুগ ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে চুরি করে আসছে।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- সিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আব্দুর রউফ, কোতোয়ালী জোনের সিনিয়র এসি নোবেল চাকমা ও কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আর.এইচ/আরএম