ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন কাজ চলছে: কাদের

ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন কাজ চলছে: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৫৫ ২২ মে ২০২০   আপডেট: ১৪:৫৯ ২২ মে ২০২০

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা ও নিবিড় তত্ত্বাবধানে চলছে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার পুনর্বাসন কাজ। তিনি বলেন, দুর্যোগ মোকাবিলায় অতীতের মতো এবারও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দক্ষতার সঙ্গে সাফল্যের পরিচয় দিয়ে যাচ্ছেন।

শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর কেন্টিনে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে অসহায় গরীব  ছিন্নমূল শিশু ও তাদের বাবা-মা’র মাঝে ঈদের পোষাক বিতরণ করার আগে ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হয়ে একথা বলেন তিনি। 

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দুর্যোগের অমানিশার আলো হাতে আঁধারের সাহসী কাণ্ডারি উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ও নিবিড় তত্ত্বাবধানে চলছে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার পুনর্বাসন কাজ। যেকোনো দুর্যোগে থেমে থাকেনি বাংলাদেশ, প্রতিকূলতা ডিঙ্গিয়ে মর্যাদার সঙ্গে মাথা তুলে দাঁড়ানো এক দেশ বাংলাদেশ। 

করোনা সংকটে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা ত্রাণ তৎপরতায় বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মাটি ও মানুষের এ দল অতীতেও মানুষের সঙ্গে ছিলো, এখনো আছে, ভবিষ্যতেও থাকবে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, এবার এক ভিন্ন বাস্তবতায় ঈদ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ঈদ উদযাপনের চেয়ে বেঁচে থাকার লড়াইয়ে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। বেঁচে থাকলে ভবিষ্যতে আমরা সবাই ঈদ উদযাপনের অনেক সুযোগ পাবো। করোনা বিরোধী লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সরকারি নির্দেশনা প্রতিপালন করি, স্থানান্তর না করি, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি।

এই সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনাভাইরাসের এই ভয়াবহ দুর্যোগের সময় আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং ছাত্র লীগসহ সহযোগী সংগঠনগুলো মৃত্যুর ঝুঁকি নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে তা প্রশংসার দাবি রাখে বলেও মন্তব্য করেন। পরে অসহায় গরীবদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বাবু নির্মল রন্জন গুহ, সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু, কেন্দ্রীয় নেতা কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন, খায়রুল হাসান জুয়েল, আ. আজিজ, আহম্মদ উল্লাহ জুয়েল, জসিম উদদীন মাদবর, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন এবং সাধারণ সম্পাদক তারিক সাঈদ, ছাত্র লীগের সভাপতি সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। 

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রন্জন গুহ বলেন, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ প্রতিদিন দেশের কোনো না কোনো এলাকায় অসহায় মানুষদের ত্রাণ সহযোগিতা দিচ্ছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এইসব বিষয়ে অবহিত। 

সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু বলেন, আমরা ছাত্রলীগ করার সময় ৯৮- এর ভয়াবহ বন্যার সময় আমার নেতৃত্বে সারাদেশের মানুষকে স্যালাইন বিতরণ করেছিলাম। আজ ক্যাম্পাসে এসে ছিন্নমূল শিশু ও তাদের বাবা- মাদের ঈদের উপহার সামগ্রী দিতে পেরে অনেক ভালো লাগছে। করোনাভাইরাস নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম চলমান থাকবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জাআ/এমআরকে