ঘুষ নিয়ে কেনা হচ্ছে ধান!

ঘুষ নিয়ে কেনা হচ্ছে ধান!

রংপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৩৯ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

রংপুরের তারাগঞ্জ খাদ্য গুদামে চলতি মৌসুমে কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনা নিয়ে টন প্রতি কৃষকদের কাছ থেকে এক থেকে দেড় হাজার টাকা আদায় করা হচ্ছে। এছাড়া টাকা না দিলে ধানের গুণগত মান ভালো নয় বলে নানা অজুহাত দেখিয়ে কৃষকদের হয়রানি করা হচ্ছে।

রোববার দুপুরে ভুক্তভোগী কৃষকেরা রংপুর প্রেস ক্লাবে এসে এ অভিযোগ করেন খাদ্য গুদামের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে তারাগঞ্জ উপজেলায় কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ১ হাজার ১৭২ মেট্রিক টন ধান কেনার কথা রয়েছে। সে হিসেবে কৃষকদের তালিকা চূড়ান্ত করে ধান কেনা শুরু করা হলেও বেশির ভাগ কৃষকের কাছে এক থেকে দেড় হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে ধান নেয়া হয়েছে। 

তারাগঞ্জ উপজেলার শিয়াল খাওয়া গ্রামের কৃষক জয়নাল রোববার দুপুরে রংপুর প্রেস ক্লাবে এসে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, গুদামে এক টন ধান দিতে তার কাজ থেকে ৭০০ টাকা ঘুষ নেয়া হয়েছে।

বালাপাড়া গ্রামের কৃষক বিপ্লব রায় অভিযোগ করে বলেন, তার কাছ থেকে এক টন ধানের জন্য নেয়া হয়েছে ১ হাজার ৬০০ টাকা।

বানিয়াপাড়ার কৃষক নাসরিন বেগম জানান, তার কাছে এক টন ধানের জন্য নেয়া হয়েছে, ১ হাজার ৭০০ টাকা। 

কৃষকরা জানান, টাকা না দিলে ধান নিতে গড়িমসি করে গুদাম কর্মকর্তারা। আগে টাকা দেয়ার পর তাদের কাছ থেকে ধান কেনা হয়। যারা আগাম টাকা দেয়নি চেক নেবার সময় টাকা নিয়ে তার পর চেক দেয়া হয়েছে। 

এ ব্যাপারে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা আব্দুল কাদের বলেন, ভুক্তভোগী কৃষকরা অভিযোগ দিলে অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ