Alexa ঘরে মায়ের মরদেহ রেখে জমি ভাগাভাগিতে ব্যস্ত ৩ সন্তান!

ঘরে মায়ের মরদেহ রেখে জমি ভাগাভাগিতে ব্যস্ত ৩ সন্তান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:১৪ ৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

মায়ের মরদেহ ঘরে রেখে সম্পত্তি ভাগ-বাটোয়ারায় ব্যস্ত তিন সন্তান। সকালে মায়ের মৃত্যু হলেও বিকেল পর্যন্ত বাড়িতেই পরে থাকে দেহ। দীর্ঘক্ষণ পর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পঞ্চায়েত সদস্য ও পুলিশ। তাদের উদ্যোগেই বৃদ্ধার দেহ সৎকারের ব্যবস্থা শুরু হয়। বৃদ্ধার সন্তানদের কীর্তিতে হতবাক স্থানীয়রা। এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটলো ভারতের উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জের সোহরাই মোড় এলাকায়।

মৃতার নাম নিয়তি দত্ত। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ছিলেন তিনি। ৭ মাস আগে তার স্বামীর মৃত্যু হয় তাঁর। স্বামীর মৃত্যুর পর নিয়তিদেবী অসুস্থ অবস্থায় মেয়ে স্বপ্নার কাছে থাকতে শুরু করেন।

পাশেই থাকেন নিয়তি দেবীর দুই পুত্র সন্তান আশিস ও কমল। বুধবার সকালে নিয়তিদেবীকে নিথর হয়ে বিছানায় পড়ে থাকতে দেখেন মেয়ে। এরপরই খবর দেয়া হয় প্রতিবেশীদের। কিন্তু আদৌ তখনো নিয়তদেবীকে মৃত বলে ঘোষণা করেননি কোনো চিকিৎসক।  

ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গেলেও কোনো চিকিৎসককে খবর দেয়া হয়নি। উল্টো মায়ের মৃত্যু হয়েছে তা বুঝতে পেরে সম্পত্তি বাটোয়ারা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন বৃদ্ধার সন্তানেরা।

জানা গেছে, তড়িঘড়ি ডেকে আনা হয় জমি মাপার লোক। জমি সমান ভাগ করে দেন তিনি। এরপর সীমানায় খুঁটিও পুঁতে ফেলেন দুই ছেলে।

দুপুর তিনটে পর্যন্ত এসবই চলে বৃদ্ধার দেহ কাপড়ে ঢেকে রেখে। গোটা দিনের ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন প্রতিবেশীরা।

এরপই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পঞ্চায়েত সদস্য ও পুলিশ। তাদের প্রশ্নের মুখে পড়ে যদিও বোনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন আশিস ও কমল। তাদের অভিযোগ, বোনই তাদের মাকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে বাধা দিয়েছে।  

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ