গাজীপুরের একটি কারখানায় নামাজ বাধ্যতামূলক

গাজীপুরের একটি কারখানায় নামাজ বাধ্যতামূলক

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:১১ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১০:৩১ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

গাজীপুরের মাল্টিফ্যাবস লিমিটেড নামের একটি পোশাক কারখানায় তিন ওয়াক্ত নামাজ পড়া বাধ্যতামূলক করেছে কর্তৃপক্ষ। কারখানার সকল কর্মকর্তা, কর্মচারীরা অফিস চলাকালীন সময় প্রতিদিন মসজিদে গিয়ে যোহর, আসর ও মাগরিবের নামাজ পড়ার নিয়ম চালু করেছে। 

গত ৯ ফেব্রুয়ারি কারখানাটিতে এ নিয়ম চালু করা হয়। শুধু তাই নয়, এই তিন ওয়াক্ত নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় হাজিরা মেশিনে পাঞ্চ করে যেতে হবে। যদি কোন কর্মী মাসে সাতবার পাঞ্চ করে নামাজ না পড়েন; তবে একদিনের সমপরিমাণ হাজিরা কেটে নেয়া হবে তার বেতন থেকে।

কারখানাটির অপারেশন্স বিষয়ক পরিচালক মেসবাহ ফারুকী বলেন, এটি শুধু উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের জন্য। সবাই আমরা নামাজ পড়ি। ইসলামের অনুসারী হিসেবে নামাজ আমাদের ওপর ফরজ। আর এ কারণেই এমন নিয়ম চালু করেছে কর্তৃপক্ষ।

শুধু তাই নয় কর্মীদের মতানৈক্য কমাতে একটি উপায় হিসাবে কারখানায় নামাজ বাধ্যতামূলক করার এই সিদ্ধান্ত বলেও তিনি জানিয়েছেন। ফারুকী বলেন, আমাদের এখানে বিভিন্ন মতের লোক আছেন। কিন্তু এখানে সবাইকে একটা টিম হিসেবে কাজ করতে হয়। সেক্ষেত্রে মসজিদ ছাড়া একসঙ্গে বসানোর কোন পন্থা খুঁজে পাননি বলে জানালেন ফারুকী। নামাজ বাধ্যতামূলক করার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যগত একটি ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি।

কারখানাটির মেসবাহ ফারুকী আরো বলেন, সারাদিন বসে বসে কাজ করায় কোলেস্টেরল বাড়ছে, ডায়াবেটিস বাড়ছে। মসজিদ চারতলায় হওয়াতে কিছুটা ব্যায়ামও হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস