Alexa গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ২২ ফিলিস্তিনি নিহত

গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ২২ ফিলিস্তিনি নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৪২ ১৩ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় দু’দিনে ২২ জন ফিলিস্তিনি নাগরিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন অন্তত ৬৯ জন।  

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ভোরে গাজা উপত্যকা ও সিরিয়ায় ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী ও শিন বেত সিকিউরিটি সার্ভিসের যৌথ আভিযানে ইরান সমর্থিত ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী ইসলামি জিহাদের শীর্ষ কমান্ডার বাহা আবু আল-আত্তা স্ত্রী সহ নিহত হন। এছাড়া আরেক হামলায় তার ছেলেরও মৃত্যু হয়। 

এদিকে শীর্ষ কমান্ডার নিহত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইসরায়েল ও গাজার মধ্যে তীব্র লড়াই শুরু হয়েছে। ইসরায়েলি আগ্রাসনের জবাবে মঙ্গলবার ভোর থেকে গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে রকেট ছোড়া শুরু হয়। 

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর দাবি, গাজায় ইসলামি জিহাদের কমান্ডার আল-আত্তা নিহত হওয়ার পর গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলের উদ্দেশে অন্তত ২২০টি রকেট হামলা চালানো হয়েছে। এর মধ্যে ৯০ ভাগ রকেট প্রতিহত করেছে বিমান বাহিনী। 

গাজা থেকে নিক্ষেপ করা রকেটে প্রায় ২৫ জন ইসরায়েলি আহত হয়েছে। কিছু রকেট ইসরায়েলের মধ্যবর্তী অঞ্চলে অবস্থিত তেল আবিব শহরে গিয়েও পড়ে। এরপরই বুধবার ইসলামি জিহাদকে লক্ষ্য করে জবাব দিয়েছে তেল আবিব। 

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আশরাফ আল-কিদরা জানিয়েছেন, ইসরায়েলি বিমান হামলায় এখন পর্যন্ত ২২ জন নিহত এবং ৬৯ জন আহত হয়েছেন।  

সারাদিন ধরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত থাকলেও সন্ধ্যা পর্যন্ত ইসরায়েল গাজার শাসক দল হামাসের কোনো লক্ষ্যে হামলা করেনি। চলতি লড়াই থেকে হামাসকে দূরে রাখতেই ইসরায়েল এ কৌশল নিয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম হারেৎজ।

এ সংঘাতে হামাস জড়িয়ে পড়লে লড়াইয়ের চরিত্র উল্লেখযোগ্যভাবে পাল্টে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। কারণ তাদের সামরিক সামর্থ্য ইসলামিক জিহাদের চেয়ে অনেক বেশি। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হামাসও নিজেদের এ সংঘাত থেকে দূরে রেখেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী