গাছ লাগানো অব্যাহত রাখতে হবে: পরিবেশমন্ত্রী

গাছ লাগানো অব্যাহত রাখতে হবে: পরিবেশমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৩২ ১১ জুলাই ২০২০  

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেছেন, করোনাভাইরাসের জন্য সারাবিশ্ব চরম বিপর্যয় অতিক্রম করলেও নিজেদের সুন্দরভাবে বেঁচে থাকার জন্যই বেশি করে গাছ লাগানোর কার্যক্রম চালিয়ে যেতে হবে।

শনিবার রাজধানীতে নিজে সরকারি বাসভবন থেকে অনলাইনে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস-২০২০ উপলক্ষে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

পরিবেশমন্ত্রী বলেন, জলবায়ুর পরিবর্তনের প্রভাব মানুষের ওপর দীর্ঘমেয়াদী ও মারাত্মক প্রভাব ফেলে। জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর এই প্রভাব থেকে রক্ষা পেতে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বেঁচে থাকার জন্য বায়ুমন্ডলে অক্সিজেনের পরিমান বাড়াতে খোলা জায়গায় বিশেষ করে সব প্রতিষ্ঠানে বেশি বেশি করে গাছ লাগাতে হবে এবং তা সংরক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ‘মহামারি কোভিড-১৯ প্রতিরোধ করি, নারী ও কিশোরীর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করি’ প্রতিপাদ্য ধারণ করে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ, ত্রাণ বিতরণ ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ক এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- নেছার আহমদ এমপি, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান ও সিভিল সার্জন ডা. তওহীদ আহমদ।

পরিবেশমন্ত্রী শাহাব উদ্দীন বলেন, সরকারের কার্যকরি উদ্যোগে দেশে মাতৃমৃত্যু, নবজাতক ও শিশু মৃত্যুহার উল্লেখযোগ্য হারে হ্রাস পেয়েছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ও সক্ষম নারীর সন্তান জন্মদানের হার কাঙ্ক্ষিত পর্যায়ে আনা সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারের নানা উদ্যোগের জন্য মানুষের গড় আয়ু বৃদ্ধি পেয়ে ৭২ দশমিক ৩ বছরে দাঁড়িয়েছে।
মতবিনিময় সভার পর বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস-২০২০ উপলক্ষ্যে জেলার পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের বার্ষিক কাজের মূল্যায়নে শ্রেষ্ঠ পাঁচ জন কর্মী ও পাঁচটি প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার দেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে