গাংনীতে তালাবদ্ধ ঘরে নারীর অর্ধগলিত মরদেহ

গাংনীতে তালাবদ্ধ ঘরে নারীর অর্ধগলিত মরদেহ

মেহেরপুর প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:০০ ২৮ মে ২০২০   আপডেট: ২১:১৬ ২৮ মে ২০২০

গাংনীতে তালাবদ্ধ ঘরে নারীর অর্ধগলিত মরদেহ

গাংনীতে তালাবদ্ধ ঘরে নারীর অর্ধগলিত মরদেহ

মেহেরপুরে গাংনী উপজেলার বামুন্দী বাজার এলাকায় তালাবদ্ধ ঘর থেকে সুন্দরী খাতুন নামে এক পরিচ্ছন্নকর্মীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পাশের কক্ষ থেকে সুন্দরী খাতুনের স্বামী রুস্তম আলীকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।   

ওই দম্পতির বাড়ি গাংনী উপজেলার নতুন মটমুড়া গ্রামে। তারা বামন্দীর একটি ভাড়া বাড়িতে থাকতেন।

বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে বামন্দী শহরের সাইদুর রহমান টবুর বাড়ি থেকে তাদের উদ্ধার করে গাংনী থানা পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, রুস্তম আলী ও তার স্ত্রী সুন্দরী খাতুন কয়েক বছর যাবত বামন্দী শহরে পরিচ্ছন্নকর্মী হিসেবে কাজ করে আসছিলেন। কর্মের সুবাদে তারা বামন্দীর ভাড়া বাড়িতে বসবাস করতেন। সকালের দিকে ভাড়া বাড়ির তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে দূর্গন্ধ পেয়ে প্রতিবেশীরা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে ওই কক্ষ থেকে সুন্দরী খাতুনের গলিত মরদেহ ও তার স্বামীকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে।

গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমান জানান, স্থানীয় লোকজন ও প্রতিবেশীরা ওই বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে সুন্দরীর মরদেহ ও তার স্বামী রুস্তম আলীকে উদ্ধার করা হয়। কোনো সন্ত্রাসী চক্র পরিকল্পিতভাবে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্বামী-স্ত্রীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করতে পুলিশের একাধিক দল তৎপর আছে। সুন্দরী খাতুনের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়েছে। রুস্তম আলীকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ