Alexa গঙ্গাসাগরে ই-স্নান, সাত হাজারেরও বেশি আবেদন

গঙ্গাসাগরে ই-স্নান, সাত হাজারেরও বেশি আবেদন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:১৮ ১৬ জানুয়ারি ২০২০  

ছবিঃ সংগৃহীত

ছবিঃ সংগৃহীত

প্রতিবছর মকর সংক্রান্তিতে গঙ্গাসাগরে পূণ্যস্নান করতে ভীড় জমান লাখো পূণ্যার্থী। এবছরও শুরু হয়েছে পূণ্যস্নান বুধবার ভোররাত থেকে শুরু হয় এই পূণ্যস্নান। তাই গঙ্গাসাগর মেলাপ্রাঙ্গনে অন্তত ৩৫ লক্ষ মানুষের ভিড় লক্ষ করা গেছে। মেলাও জমে উঠেছে। ইদানীং যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা উন্নত হওয়ায় এখন পূণ্যস্নান করে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই কলকাতায় ফিরে যাওয়া সম্ভব।

যোগাযোগ ব্যবস্থার এই উন্নতির জন্য মেলায় বৃদ্ধি পেয়েছে ভিড়। কিন্তু সেই ভিড়ে সকলে যেতে রাজি নয়। আর তাই তাদের জন্য বাজারে এলো ই-স্নান ওয়েবসাইট। আবেদনের ঝড় বইছে ই-স্নান ওয়েবসাইটে। যেখানে সামান্য খরচে বাড়ি বাড়ি পাঠানো হচ্ছে গঙ্গা জল-সহ পুজোর সামগ্রী। স্থানীয় জেলা প্রশাসন সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, মেলা শুরুর দিন থেকে এখনও পর্যন্ত সাত হাজারের বেশি আবেদনপত্র জমা পড়েছে। এরই মধ্যে ২২৩৬ জন আবেদনকারীর বাড়ি পৌঁছে গিয়েছে পুজো সামগ্রীর প্যাকেট। বাকিদের কাছেও দ্রুত প্যাকেট পৌঁছে দেওয়ার কার্যক্রম চলছে।

এ রাজ্যের বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি বিহার, ওড়িশ্যা, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র থেকেও ই-স্নানে পুজো সামগ্রী পাঠানোর আবেদন করা হয়েছে। মঙ্গলবার স্থানীয় জেলা প্রশাসক বলেন, 'এই ব্যবস্থাটি এ বছরই পরীক্ষামূলক ভাবে চালু করা হয়েছে। প্রচুর মানুষের সাড়া মিলেছে। আগামী দিনে আরও বেশি মানুষের কাছে পুজোর প্যাকেট পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।'

ই-স্নান ওয়েবসাইট ছাড়াও  অ্যানড্রয়েড মোবাইলে বাংলা, ইংরেজি, হিন্দি-সহ ছয়টি ভাষায় চালু হয়েছে 'গঙ্গাসাগর সহায়তা' অ্যাপ। এই অ্যাপের সাহায্যে মেলা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জানতে পারছেন পূণ্যার্থীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/ জেএইচএফ