‘খুন হওয়া’ মেয়ে প্রেমিকের বাড়িতে, কারাগারে বাবা-ভাই

‘খুন হওয়া’ মেয়ে প্রেমিকের বাড়িতে, কারাগারে বাবা-ভাই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৩১ ৮ আগস্ট ২০২০  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

মেয়েকে খুন করার অভিযোগে ১৮ মাস ধরে জেল খাটছেন জন্মদাতা বাবা। বাবার সঙ্গে একই অভিযোগে জেলে রয়েছে ভাই। কিন্তু এতদিন পর আচমকা ‘খুন হওয়া’ মেয়েকে পাওয়া গেল প্রেমিকের বাড়িতে। সেখানে মেয়েটি প্রেমিকের সঙ্গে দিব্যি আয়েশে সংসার করছে।

শনিবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের আমরোহা জেলার আদমপুর থানার মধুপুর গ্রামের এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনার খবর প্রকাশ করেছে আনন্দবাজার অনলাইন। এতে পুলিশের তদন্ত প্রশ্নের সম্মুখিন হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, ২০১৯ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি ঘটনার সূত্রপাত হয়। ওই দিন মধুপুর গ্রামের বাসিন্দা ওই তরুণীর ভাই রাহুল পুলিশের কাছে যান। তিনি পুলিশকে জানান, তার বোন কমলেশ নিখোঁজ হয়েছে। এ ঘটনায় ১৮ ফেব্রুয়ারি আদমপুর থানার পুলিশ তরুণীর বাবা সুরেশ, ভাই রূপকিশোর ও পাশের গ্রামের এক লোককে গ্রেফতার করে।

তদন্ত শেষে পুলিশ জানায়, ওই তরুণীকে খুন করা হয়েছে। তরুণীর পোশাক ছাড়াও ‘খুনের অস্ত্র’ উদ্ধার করার দাবি করে পুলিশ।

সম্প্রতি রাহুল জানান, কমলেশকে পাওরায়া গ্রামে খুঁজে পেয়েছে তার পরিবার। প্রেমিক রাকেশের বাড়িতেই তার বোন রয়েছে। ২০১৯ সালেই রাকেশের সঙ্গেই পালিয়ে গিয়েছিলেন কমলেশ। পালিয়ে গিয়ে বাবা ভাইকে জেল খাটানো কমলেশের একটি সন্তানও হয়েছে।

এরপরই ওই তরুণীর পরিবার আদমপুর পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে। তাদের দাবি, কমলেশকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার করে তরুণীর বাবা ও ভাইকে। বেদম পিটিয়ে মেয়েকে খুনের কথা বাবার মুখে স্বীকার করানো হয়। কিন্তু এখন বের হয়েছে আসল কাহিনী। এরইমধ্যে মিথ্যা মামলা থেকে তরুণীর বাবা ও ভাইকে মুক্তির আশ্বাস দেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ