খাবার নেই, এবার সবকিছু পুড়ে নিঃস্ব ভ্যানচালক

খাবার নেই, এবার সবকিছু পুড়ে নিঃস্ব ভ্যানচালক

দিনাজপুর প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:২০ ৪ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ১৭:২২ ৪ এপ্রিল ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার পল্লীতে আগুনে পুড়ে সবকিছু হারিয়ে সর্বহারা হয়েছেন একটি পরিবার। প্রাণঘাতি করোনার কারণে ভাতের অভাবের সঙ্গে এবার ঘর হারানোর কষ্ট চেপে বসেছে। 

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নশরতপুর ইউপির বারঘড়ি পাড়ায়।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে গরুর ঘর থেকে কয়েলের আগুনে নশরতপুর গ্রামের বারঘড়ি পাড়ার বাসিন্দা ভ্যানচালক জামাল উদ্দিনের একটি বসত ঘর ও গোয়াল ঘর পুড়ে গেছে। এ সময় ঘরে থাকা ১ লাখ টাকা দামের দুটি গরু ও একটি ভ্যানসহ ঘরের থাকা সবকিছু পুড়ে যায়।

জামাল উদ্দিনের স্ত্রী লায়লা বেগম জানায়, অনেকদিন থেকেই আয় রোজগার বন্ধ হয়ে গেছে। খাবারের টাকা জুটে না, এবার রোজগার করা ভ্যানটিও পুড়ে গেছে। সাহায্যের যে টুকু চাল ছিলো সেটুকুও পুড়ে গেছে। 

এবার খাবারের সঙ্গে মাথা গোঁজার ঠাঁইও হারিয়ে গেছে। সবার সাহায্য সহযোগিতা ছাড়া ছেলে মেয়ে নিয়ে বেঁচে থাকার আর উপায় নেই।

ইউএনও আয়েশা সিদ্দীকা  জানান, এই করোনা প্রাদুর্ভাব শেষ না হওয়া পর্যন্ত আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে সরকারের পাশাপাশি সবাইকে দাঁড়ানোর জন্য আহবান করা যাচ্ছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে