ক্রিকেটের আইনের দিকে আঙুল তুললেন শোয়েব

ক্রিকেটের আইনের দিকে আঙুল তুললেন শোয়েব

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৩০ ৬ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৫:৩৩ ৬ আগস্ট ২০২০

শোয়েব আখতার

শোয়েব আখতার

মাত্র দেড় দশক আগেও বিশ্বে রাজত্ব করতেন দ্রুতগতির বোলাররা। এখনো যে করেন না তা নয়, কিন্তু সংখ্যাটা কমে এসেছে অনেকটাই। এক্সপ্রেস বোলারদের বদলে এখন মিডিয়াম ফাস্ট বোলারের সংখ্যাই বেশি। এর কারণ হিসেবে ক্রিকেটের আইনকে দায়ী করেছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার শোয়েব আখতার। 

সম্প্রতি বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে শোয়েব বলেন, ‘১০ বছর আগে বোলাররা নিয়মিত ঘণ্টায় ১৫৫ কিলোমিটার গতিতে বল করত। অথচ এখনকার বোলারদের গতি ঘণ্টায় ১৩৫ কিলোমিটারে নেমে এসেছে। গোটা বিশ্বে সত্যিকারের ফাস্ট বোলার মাত্র কয়েকজন আছে এখন। আমাদের সময় তো কেবল দক্ষিণ আফ্রিকার ছিল ছয়জন!’

ক্রিকেটের আইনের দিকে আঙুল তুলে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটের আইনই এখন বোলারদের দ্রতগতিতে বল করার পথে বাধা। ওয়ানডেতে দুটি নতুন বল, অতিরিক্ত বিধিনিষেধ তো আছেই, তার ওপর অনেক বেশি ম্যাচ, সারাবিশ্বে এত এত টি-টোয়েন্টি লিগ, চারদিকে প্রচুর অর্থের ছড়াছড়ি, অনেক বেশি টিভি স্বত্ব সবই বোলারদের এই অবস্থার জন্য দায়ী।’

বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির এই বোলার আরো বলেন, ‘এখন অর্থের দিকেই ক্রিকেটারদের ঝোঁক বেশি। তারা চায় ক্যারিয়ার লম্বা করতে, যেন ১০ বছর খেলতে পারে। অন্যদিকে আমি নিজেকে প্রতিটি সিরিজে উজাড় করে দিতাম, একেকটি দিনে সর্বস্ব ঢেলে দিতাম।’

শোয়েব যোগ করেন, ‘ক্রিকেটের আইন তখন এতটা জটিল ছিল না। যখন ওভারে দুটির বেশি বাউন্সার নিষিদ্ধ করা হলো, আমি প্রচণ্ড হতাশ হয়েছিলাম। মনে হচ্ছিল, এখন তাহলে কীভাবে ব্যাটসম্যানকে ফাঁদে ফেলব? বডি লাইন বোলিং কোথায় গেল!’

ক্রিকেটের নিয়ম পাল্টানোর আহ্বান করে রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেন, ‘দয়া করে শরীর তাক করে বোলিং করার অনুমতি দিন। তাকেও (ব্যাটসম্যান) আমাকে পাল্টা আক্রমণ করার সুযোগ দিন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তো এসবই কাম্য! বর্তমানে দুর্বল, ছিমছাম ক্রিকেট দেখতে দেখতে আমি বিরক্ত।’

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল