ক্রিকেটারদের করোনা পরীক্ষার পরিকল্পনায় বিসিবি

ক্রিকেটারদের করোনা পরীক্ষার পরিকল্পনায় বিসিবি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:১৬ ৪ জুন ২০২০  

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড

ক্রিকেটকে আবার মাঠে ফিরিয়ে আনার লক্ষে খেলোয়াড়দের করোনা পরীক্ষা করার পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি জানিয়েছে যে খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্যগত বিষয়ে তারা কোন রকম ঝুঁকি নিতে রাজি নয়। প্রানঘাতি এই ভাইরাসটি গোটা বিশ্বে বিশৃংখলতার সৃস্টি করেছে।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, আমরা খেলোয়াড়দের করোনা পরীক্ষা করানোর কথা ভাবছি। কিভাবে এই পরীক্ষার কাজ সম্পাদন করা যায় তা নিয়ে ভাবছে সংশ্লিষ্ট বিভাগ। আমরা জানি এই ভাইরাস কতটা ভয়ঙ্কর। তাই খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্যগত বিষয় নিয়ে কোন রকম ঝুঁকি নিতে চাই না’।

যদিও ক্রিকেটাররা তাদের বাড়ীতেই সময় কাটিয়েছে এবং লকডাউন চলাকালে বোর্ডের গাইডলাইন অনুসরণ করেই অনুশীলন করেছে।  তারপরও কোন রকম ঝুঁকিতে না থাকার লক্ষ্যেই বোর্ড পরীক্ষা করানোর চিন্তা করছে।  

বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘নিরাপত্তার স্বার্থে খেলোয়াড়দের পরীক্ষার আওতায় আনাটা জরুরী। তখন তারা নিজেরাও নিরাপদ বোধ করবে’।

এরইমধ্যে শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামকে জীবানুমুক্ত করার কাজ পুরোদমে শুরু হয়েছে। প্রথম পর্বে বিসিবির অফিসগুলোকে জীবানুমুক্ত করা হচ্ছে। এরপর ক্রমান্বয়ে জীবানুমুক্ত করা হবে মাঠ, ইনডোর, একাডেমী মাঠ, জিমনেশিয়াম, খেলোয়াড়দের বিশ্রামগার ও অন্যান্য অবকাঠামো।

বিসিবি কর্মকর্তাদের ভাষ্যমতে মাঠ খেলোয়াড়দের উপযোগী করতে দুই সপ্তাহ সময় লাগবে। এরইমধ্যে খেলোয়াড়দের ব্যক্তিগত অনুশীলনের অনুমতি দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে বোর্ড। সামাজিক দূরত্ব মেনেই এসব কর্মকান্ড পরিচালনা করা হবে।

বিসিবির প্রধান ফিজিশিয়ান ডা. দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘শুরুতে ধীরস্থির ভাবেই অনুশীলন করতে হবে। একজন খেলোয়াড় অনুশীলনের জন্য সময় পাবেন এক ঘন্টা। গাইডলাইন মেনেই একজন খেলোয়াড় অনুশীলন করবেন। তাকে সহায়তা করবেন ট্রেইনার, ফিজিও এবং সুপারভাইজার। এর বাইরে অন্য কেউ সেখানে থাকতে পারবে না। এরপর একইভাবে অনুশীলনে নামবে আরেকজন খেলোয়াড়’।

তিনি বলেন, ‘কিছুদিন এভাবে কাটানোর পর আমরা তিনজন করে খেলোয়াড় নিয়ে গাইডলাইন অনুসরণ করে নতুন অনুশীলন শুরু করব। এরইমধ্যে আইসিসির পক্ষ থেকে একটি গাইডলাইন দেয়া হয়েছে।  আমরা সেটা অনুসরণ করব’।

সর্বশেষ তথ্য মতে বাংলাদেশে শনাক্ত হয়েছে ৫৭ হাজার ৫৬৩জন করোনা রোগী। ইতোমধ্যে প্রানঘাতি ওই ভাইরাসের সংক্রমনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৮১ জনে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস