Alexa কোহলি যখন সান্তাক্লজ!

কোহলি যখন সান্তাক্লজ!

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৩৫ ২১ নভেম্বর ২০১৯  

ছবিঃ সংগৃহীত

ছবিঃ সংগৃহীত

সাধারণত ডিসেম্বরে শীতের রাতে দেখা যায় সান্তাক্লজকে। খ্রিস্টানদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব বড় দিনের আকর্ষণ এই সান্তাক্লজ। তবে ভারতের বারুইপুরের আনন্দঘরের অসুস্থ শিশুদের এতদিন অপেক্ষা করতে হয়নি। অসময়ে তাদের কাছে চলে এসেছেন সান্তাক্লজ। খুশিতে হতভম্ব হয়ে গিয়েছিল সব শিশুই। কারণ এ সান্তাক্লজ অন্য কেউ নন। স্বয়ং বিরাট কোহলি!

নভেম্বরের সাতসকালে সান্তা বুড়োকে দেখে বেশ মজাই পেয়েছিল হোমের খুদেরা। একটার পর একটা উপহার পেয়ে খুশিতে ডগমগ করছিল তারা। কিন্তু আসল চমক তখনও বাকি। হঠাৎ সান্তাক্লজ তার সাজ খুলে ফেলতেই চিৎকার করে উঠল খুদের দল। নিজের চোখকেও যেনো তারা বিশ্বাস করতে পারছিল না। কোহলিকে দেখে বিস্ময়ে হতবাক হয়ে যায় সবাই। বারুইপুরের একটি হোম আনন্দঘরের এই খুদেরা এইচআইভি আক্রান্ত। প্রতিদিনের জীবনযুদ্ধের মাঝখানে হঠাৎ এমন পাওনায় ওদের চোখ-মুখ তখন খুশিতে উজ্জ্বল।

আগে থেকেই ঠিক ছিল এই শিশুরা শুক্রবার ভারত-বাংলাদেশের ঐতিহাসিক ‘পিঙ্ক টেস্টে’ নৈশ বিরতিতে ছয় ওভারের জন্য ইডেন কাঁপাবে। খেলা শুরুর আগে দুই দলের খেলোয়াড়দের মাঠে নিয়ে যাবে ওরাই। ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়িয়ে গাইবে জাতীয় সঙ্গীত। কিন্তু তার আগের দিন যে তাদের সঙ্গে হোমে দেখা করতে আসবেন কোহলি তা কেউ স্বপ্নেও ভাবেনি।

শুক্রবার পিঙ্ক টেস্ট উপলক্ষে নানা আয়োজনে মুখর থাকবে ইডেন গার্ডেন্স। সেখানে ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তনদের সঙ্গে খেলবে এই খুদেরা। সেজন্য ৪০ জন বাচ্চাকে নিয়ে কয়েক দিন ধরে অনুশীলন চলছে হোমের ভিতরে। ‘আনন্দঘর’ হোমের কর্ণধার কল্লোল ঘোষ জানান, সিএবি গঠনমূলক কাজের জন্য এবার এইচআইভি বাচ্চাদের পাশাপাশি ক্যানসার-জয়ীদের জন্যও খেলা দেখার ব্যবস্থা করেছে। তিনি বলেন, এখনও সমাজে এইচআইভি আক্রান্ত মানুষকে স্পর্শ করতে ভয় পান অনেকেই। ক্রিকেটের মাধ্যমে সেই ভয় কাটানোর জন্য আমি সৌরভ গাঙ্গুলির কাছে আবেদন করেছিলাম।

শুক্রবার ঐতিহাসিক ইডেন টেস্টে দুপুর দেড়টায় ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল