সন্ধান মিললো বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্সের, উদ্ধারকর্মীরা কোয়ারেন্টাইনে

সন্ধান মিললো বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্সের, উদ্ধারকর্মীরা কোয়ারেন্টাইনে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:১৩ ৮ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৭:৪৪ ৮ আগস্ট ২০২০

এয়ার ইন্ডিয়ার বিধ্বস্ত বিমানটি

এয়ার ইন্ডিয়ার বিধ্বস্ত বিমানটি

ভারতের কেরালা রাজ্যে দুর্ঘটনার শিকার হওয়া এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার করা হয়েছে। এই ব্ল্যাক বক্সের তথ্য পরীক্ষা করে বিমান দুর্ঘটনার সঠিক কারণ জানা যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এছাড়া এ দুর্ঘটনার উদ্ধার অভিযানে যুক্ত থাকা কর্মীদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শনিবার দেশটির কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এক সূত্রে জানা গেছে, ওই বিমানের যাত্রীদের মধ্যে ৪০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। ফলে বিমান দুর্ঘটনার উদ্ধারকাজে যারা যুক্ত ছিলেন তাদের সবারই করোনা পরীক্ষা করা হবে। কেরালার স্বাস্থ্যমন্ত্রী কেকে শৈলজা জানিয়েছেন, উদ্ধারকর্মীদের সবাইকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় কেরালার কোঝিকোড় বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি এক্সপ্রেস প্লেন। এতে পাইলটসহ ২০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১২৩ জন। নিহতদের মধ্যে বিমানের ২ পাইলট রয়েছে।

বিমানের ব্ল্যাক বক্স হচ্ছে, ডিজিটাল ফ্লাইট ডেটা রেকর্ডার ও ককপিট ভয়েস রেকর্ডার। বিমানের তথ্য, পারফরমেন্স, গতি, ব্রেকিং ও সিস্টেম স্ট্যাটাস নথিভুক্ত থাকে ব্ল্যাক বক্সে। এছাড়া ককপিটে দুই পাইলটের কথোপকথনও রেকর্ড হয়ে যায় সেখানে। তাই ব্ল্যাক বক্স থেকে বিমানের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব।

জানা গেছে, কোঝিকোড় বিমানবন্দরের ১০ নম্বর রানওয়েতে বিমানের ওঠা-নামা করানো ঝুঁকিপূর্ণ। সেই বিষয়ে ১০ বছর আগেই সতর্কবার্তা দিয়েছিলেন নিরাপত্তা উপদেষ্টা কমিটির সদস্য ক্যাপ্টেন মোহন রঙ্গনাথন। বৃষ্টি পড়লে এই রানওয়েতে কখনোই বিমানের অবতরণ সঠিক সিদ্ধান্ত নয় বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। শুক্রবার এই দুর্ঘটনার সময় অঝোরে বৃষ্টি পড়ছিল কোঝিকোড়ে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার দুপুরে দুবাই থেকে ১৯১ জন যাত্রী নিয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার এক্সপ্রেস বিমানটি কেরালার কোঝিকোড়ে রাত পৌনে ৮টার দিকে অবতরণের সময় রানওয়েতেই পিছলে যায়। বিমানটিতে ১৭৪ জন যাত্রী, ১০ জন শিশু, দুজন পাইলট এবং চারজন কেবিন ক্রু ছিলেন।

সূত্র- এই সময়

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএমএফ