Alexa কেরানীগঞ্জে পারিবারিক বিরোধে ৭ জন আহত

কেরানীগঞ্জে পারিবারিক বিরোধে ৭ জন আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২২:১২ ১১ জুন ২০১৯   আপডেট: ২২:১৫ ১১ জুন ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের গোয়ালখালিতে চাচা ও চাচাতো ভাই-বোনদের সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এক পক্ষের হামলায় নারী শিশুসহ সাতজন আহত হয়েছেন। আহতদের ঢাকার স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়।

মঙ্গলবার দুপুর দেড় টায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, দেলোয়ার হোসেন (৫০), ময়ফুল (৪০), দেলোয়ারা (২৪), তানজিলা (২৫), ওয়াহিদুল(১২), বিলকিস(১৪) এবং মো. মালু (২৩)। তারা সবাই আহত দেলোয়ার হোসেনের পরিবারের সদস্য।

হাসপাতালে দেলোয়ারের শ্যালক মো. এরশাদ আলি জানান, দুপুরে দেলোয়ারের ভাতিজি সুমি তাদের বাড়িতে আসতে নিষেধ করলে চাচি ময়ফুলের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পরে, এক পর্যায়ে সুমি তার বাবা মা ও অন্য আত্মীয়রা লাঠি, লোহার পাইপ, শাবল, দা ও বটি নিয়ে দেলোয়ারের বাড়ির নারী ও শিশুদের উপর হামলা চালায়।

তিনি বলেন, এতে দেলোয়ারের স্ত্রীর গুরুতর আহত হয়। নিজ পরিবারের উপর হামলার খবর পেয়ে দেলোয়ার বাড়িতে ছুটে এলে তাকেও মারধর করা হয়। হামলাকারীদের হাত থেকে রেহাই পাননি দেলোয়ারের মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা দেলোয়ারা ও শিশু ওয়াহিদুল।

হাসপাতালে আসা আহত দেলোয়ার হোসেন জানান, তার বড় ভাই, নুরুল ইসলাম, সালাউদ্দিন, নিজাম উদ্দিন, আলাউদ্দিনসহ সবাই দেশীয় নানা অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তাদের পরিবারের নারী-পুরুষ, শিশু সবাইকে নির্বিচারে কুপিয়ে-পিটিয়ে আহত করেছে।

এ বিষয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ডিউটি অফিসার জানান, তারা আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে মারামারির কথা শোনাচ্ছেন, অথচ সন্ধ্যা পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেননি।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইকে/আরএইচ