Alexa কেন মুসলিম হয়েও সিঁদুর পরে সংসদে নুসরত?

কেন মুসলিম হয়েও সিঁদুর পরে সংসদে নুসরত?

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৪৬ ৩০ জুন ২০১৯   আপডেট: ১৪:৪৬ ৩০ জুন ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি মুসলিম ধর্মের অনুসারী হয়েও অমুসলিম ব্যক্তিকে বিয়ে করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরত জাহান। ঘটনা এখানেই থেমে নেই। সিঁথিতে সিঁদুর পরে সংসদে গিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাট লোকসভা আসন থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকেটে ভোটে লড়ে জয়ী হওয়া নুসরত। শুধু তাই নয়, শপথ বাক্য পাঠ করার সময়ে বলেছেন 'বন্দে মাতরম'।

এসব ঘটনায় সরব হয়েছেন ভারতের কট্টরপন্থীরা। এ বিষয়ে এত দিন চুপ ছিলেন নুসরাত জাহান। অবশেষে জবাব দিয়েছেন তিনি। নুসরাত  জানিয়েছেন, তিনি ধর্মনিরপেক্ষ ভারতের নাগরিক। সমন্বিত ভারতের প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। 

নুসরত জাহান বলেন, একটি সমন্বিত ভারতকে প্রতিনিধিত্ব করছি আমি, যা জাতপাত ও ধর্মের বাধার অনেক ঊর্ধ্বে। তিনি আরও জানান, তিনি এখনও মুসলিমই, এবং ‘সব ধর্মকে সম্মান'ও করেন তিনি। 

এদিকে, টুইটারে নুসরত লিখেছেন, যেকোনো ধর্মের উগ্র মানসিকতার মন্তব্যে কান দেয়া বা প্রত্যুত্তরে প্রতিক্রিয়া প্রদান করা কেবল ঘৃণা ও হিংসার সৃষ্টি করে। ইতিহাস এর সাক্ষী।

তিনি বলেন, আমি এখনও একজন মুসলিমই। আর আমি কী পরব বা পরব না এই নিয়ে কারোরই কোনও মন্তব্য করা উচিত নয়। আস্থা পোশাক পরিচ্ছদের অনেক ঊর্ধ্বে, এটা পুরোটাই বিশ্বাস। সকল ধর্মের মূল্যবান মতবাদ নিজের মতো করে চর্চা করার উপরেই নির্ভর করে।

সংবাদ সংস্থা আইএএনএস জানিয়েছে, গত ২৫ জুন সংসদে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে কে ‘অ-ইসলামিক' (un-Islamic) সাজে এসেছিলেন নব নির্বাচিত এই সাংসদ। এই নিয়ে অদ্ভুত সমালোচনা শুরু  করেছে মুসলিম ধর্মীয় সম্প্রদায়ের একটি দল। নববিবাহিত এই সাংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে রীতিমতো ফতোয়া জারি করেছে কট্টর মুসলিম ধর্মাবলম্বী দলগুলো।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া 

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ