কৃষি জমিতে মাটি ব্যবসায়ীদের থাবা

কৃষি জমিতে মাটি ব্যবসায়ীদের থাবা

শামসুল হক ভূঁইয়া, গাজীপুর ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৩০ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১১:৩৫ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

গাজীপুরে হাজারো ইটভাটার মাটির চাহিদা পূরণে কৃষি জমিগুলোতে থাবা বসাচ্ছেন মাটি ব্যবসায়ীরা। এতে বিপুল পরিমাণ কৃষি জমি পরিণত হচ্ছে খাদে, দিনদিন কমছে চাষাবাদ।

সরেজমিনে দেখা গেছে, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের লাঠিভাঙ্গা ও ইটাহাটায় ভাটার জন্য মাটি কেটে নেয়ায় শত শত একর কৃষি জমি পরিণত হয়েছে নালা-পুকুরে। পড়ে থাকা এসব জমির পাড় ঘেঁষে কেউ কেউ ধান, বিভিন্ন ধরনের শাকসবজি চাষ করেছেন।

ভুক্তভোগীরা জানান, লাঠিভাঙ্গা, ইটাহাটাসহ বিভিন্ন এলাকায় এখন আর আগের মতো চাষাবাদ হয় না। বাড়তি লাভের আশায় জমির মাটি কেটে ইউনিক সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজসহ অসংখ্য ইটভাটায় বিক্রি করা হচ্ছে। যেসব জমির ফসল নিজেদের পাশাপাশি বিভিন্ন এলাকার মানুষের চাহিদা মেটাতো। মাটি ব্যবসায়ীদের থাবায় সেসব জমি এখন পরিণত হয়েছে নালা-পুকুরে। এভাবে চলতে থাকলে বাকি কৃষি জমিও বিলীন হয়ে যাবে। এতে ফসলের ঘাটতি দেখা দেবে।

মাটি কেটে নেয়ায় জমিতে পানি জমেছে

ইউনিক সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজের ম্যানেজার শফিক আহম্মেদ বলেন, আমরা মাটি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মাটি কিনে আনি। সরাসরি কারো জমি থেকে মাটি নেই না।

সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাবিনা সুলতানা বলেন, কৃষি জমি টিকিয়ে রেখে কিভাবে অন্যদিকে উন্নতি করা যায় সেগুলো খুঁজতে হবে। কৃষি জমি কমে যাওয়ায় নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। এতে আমাদের হুমকির মুখোমুখি হতে হবে।

গাজীপুরের এডিসি (রাজস্ব) মো. মশিউর রহমান বলেন, কৃষি জমি থেকে অনুমোদন ছাড়া গভীর করে মাটি কাটার কোন নিয়ম নেই। যারা এর সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেব।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর