কুয়াকাটা ভ্রমণে প্রতারণা এড়াতে যা করবেন

কুয়াকাটা ভ্রমণে প্রতারণা এড়াতে যা করবেন

ভ্রমণ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০০:২০ ৫ জুলাই ২০২০  

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত

ভ্রমণপিপাসুদের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু সাগরকন্যা কুয়াকাটা। করোনাভাইরাসের কারণে ১০০ দিন বন্ধ থাকার পর ১ জুলাই থেকে খুলে দেয়া হয়েছে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের এ বেলাভূমি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে বুধবার থেকে খুলেছে এখানকার সব হোটেল-মোটেল।

সংশ্লিষ্টদের ধারণা, অল্প দিনেই পর্যটকদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠবে ১৮ কিলোমিটারের এ সমুদ্র সৈকত। দ্রুত সচল হয়ে উঠবে কুয়াকাটার অর্থনীতির চাকা।

দীর্ঘদিন লকডাউনে থাকার পর কুয়াকাটা ভ্রমণে গিয়ে কেউ যেন হয়রানি বা প্রতারণার স্বীকার না হোন সে লক্ষ্যে কিছু নির্দেশনা দিয়েছে কুয়াকাটা জোনের ট্যুরিস্ট পুলিশ ও কলাপাড়া উপজেলা প্রশাসন।

ট্যুরিস্ট পুলিশ, কুয়াকাটা জোন

হোটেল ও বাসে বেশি ভাড়া আদায়, বুকিং দিয়েও রুম না পাওয়া, টিকেট কেটেও বাস না পাওয়া, রেস্টুরেন্টে খাবাদের দাম বেশি নেয়া, পচা-বাসী খাবার পরিবেশন, পর্যটকদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার, ক্যামেরাম্যান-মোটরসাইকেল চালকদের হয়রানিসহ যেকোনো সমস্যায় সঙ্গে সঙ্গে কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসনকে জানানো নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

পর্যটকদের সুবিধায় দুটি নাম্বারও দেয়া হয়েছে। ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোন- ০১৭৬৯৬৯০৭১৯, উপজেলা প্রশাসন, কলাপাড়া- ০১৭৩৩৩৩৪১৫৫।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ১৮ মার্চ পর্যটকদের কুয়াকাটা ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করে জেলা প্রশাসন। ওই সময় কুয়াকাটায় আটকা পড়া পর্যটকরা দ্রুত গন্তব্যে ফিরে যান। এরপরই কুয়াকাটার পর্যটনকেন্দ্রিক সব বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর