Alexa কুড়িগ্রামে শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

কুড়িগ্রামে শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৫৬ ৭ জুলাই ২০১৯  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে একই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকাকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।

যৌন হয়রানির শিকার ওই শিক্ষিকা রোববার ইউএনও অফিসে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে উল্লেখ করেন, উপজেলার ঝুনকার চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষিকাকে প্রায় দুই বছর ধরে কু-প্রস্তাব দেয়াসহ উত্ত্যক্ত করছিলেন প্রধান শিক্ষক মো. লাল মিয়া। এমতাবস্থায় নিজের সম্মান ও সংসারের কথা চিন্তা করে এতদিন বিষয়টি কাউকে না জানিয়ে নীরব প্রতিবাদ করেছেন। কিন্তু শনিবার দুপুরে ওই শিক্ষিকাকে অফিস কক্ষে একা পেয়ে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করাসহ বিভিন্ন কথাবার্তা বলতে থাকেন লাল মিয়া।

এ সময় ওই শিক্ষিকা এসব কথাবার্তা ও অঙ্গভঙ্গির প্রতিবাদ করলেও প্রধান শিক্ষক তার কথা কানে না নিয়ে তাকে জড়িয়ে ধরেন। এ অবস্থায় শিক্ষিকা চিৎকার করতে চাইলে এক হাত দিয়ে তার মুখ চেপে ধরে আর অন্য হাত দিয়ে তার স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দেন।

অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, প্রধান শিক্ষককে নিবৃত্ত করতে চাইলে তাকে অন্যত্র বদলি করার হুমকি দেন তিনি। এক পর্যায়ে সহকারী শিক্ষিকা প্রধান শিক্ষককে ধাক্কা দিয়ে নিজেকে মুক্ত করে বারান্দায় গিয়ে কান্নাকাটি করতে থাকেন। তখন তার কান্নার শব্দ শুনে শ্রেণিকক্ষে থাকা দুই শিক্ষকসহ শিক্ষার্থীরা বেরিয়ে এলে তিনি তাদের কাছে ঘটনা খুলে বলেন। একইসঙ্গে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে বাড়ি চলে যান। পরে বাড়িতে গিয়ে তার স্বামীর সঙ্গে পরামর্শ করে রোববার দুপুরে রৌমারী ইউএনও অফিসে অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক লাল মিয়া বলেন, ইউএনও নিকট আমার বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা কি অভিযোগ করেছে সেটা আমার জানা নেই। ইউএনও তার অফিসে আমাকে ডেকে নিয়ে জানতে চেয়েছেন। আমি বলেছি সময় মত বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়া নিয়ে তার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছে।

ইউএনও দিপঙ্কর রায় বলেন, এ বিষয়ে ঝুনকার ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকার অভিযোগ পেয়েছি। প্রাথমিক তদন্তে মনে হয়েছে বিষয়টিতে গড়মিল আছে। আরো অধিকতর তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর

Best Electronics
Best Electronics