কুষ্টিয়ায় মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছর আগের অক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার

কুষ্টিয়ায় মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছর আগের অক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৮:৫১ ২৫ জুলাই ২০২০  

মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছর আগের অক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার

মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছর আগের অক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার

একটি মৃতদেহ মাটির নিচে ক’দিন অক্ষত থাকে? সর্বোচ্চ একমাস! কিন্তু এক অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটলো কুষ্টিয়ায়। সেখানে কবর দেয়ার ২৫ বছর পরে অক্ষত অবস্থায় মৃতদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। যারা মাটি খুঁড়ে মৃতদেহ বের করেছেন, তারাও বিশ্বাস করতে পারছেন না ঘটনাটি!

কুষ্টিয়ার কুমারখালীর যদুবয়রা ইউনিয়নের বহল বাড়িয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বাড়ি করার জন্য মাটি কাটতে গিয়ে এ মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এটি মৃত মনোহর মিস্ত্রির ছেলে নূরুজ্জামানের মৃতদেহ। ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। পরে স্থানীয়রা এসে মৃতদেহ শনাক্ত করে এবং সন্ধ্যায় বহলবাড়িয়া কবরস্থানে পুনরায় দাফন করা হয়।

মৃতদেহ সনাক্ত করে নিহতের মামাতো ভাই সানোয়ার বলেন, নুরুজ্জামান খুবই সৎ ব্যবসায়ী ছিলেন। প্রায় ২৫ বছর আগে একদল ডাকাতদল তাকে কুমারখালীর গড়াই নদীর পাড়ে ধরে মালামাল লুট করে ফেলে রেখে চলে যায়। তখন তাকে মারধর ও অজ্ঞান করে রাখা হয়। এর প্রায় এক মাস পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলে বাড়ির পাশের বাগানে তাকে দাফন করা হয়।

চৌরঙ্গী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইনস্পেক্টর রাকিব হাসান জানান, মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছরের পুরোনো এক মৃতদেহ উদ্ধার করে পুনরায় দাফন করেছে স্থানীয়রা।

এ নিয়ে দিনভর স্থানীয় মানুষের মাঝে ব্যাপক আলোচনা হয়। তাদের মতে– ব্যক্তিটি সৎ ও পরহেজগার হওয়ায় এতে পচন ধরেনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে