Alexa কুষ্টিয়ায় কৃষক হত্যায় স্ত্রীসহ চারজনের ফাঁসি

কুষ্টিয়ায় কৃষক হত্যায় স্ত্রীসহ চারজনের ফাঁসি

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৪২ ১৬ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ১৫:৩৬ ১৬ অক্টোবর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কুষ্টিয়ায় কৃষক হানিফ খামারুজ হত্যা মামলায় স্ত্রীসহ চারজনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার সকালে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী এ রায় দেন। 

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নিহতের দ্বিতীয় স্ত্রী দোলেনা বেগম, তার ভাই মুকুল হোসেন, প্রতিবেশী আসমত আলী মণ্ডল ও শ্যামল প্রামাণিক। রায়ের সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অনুপ কুমার নন্দী রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ২০১৭ সালের এপ্রিলে কৃষক হানিফকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় দায়ের করা হত্যা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ ও যুক্তিতর্কের পর আদালত চারজনের ফাঁসির রায় দেয়।

মামলার তথ্যানুযায়ী, ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল রাতে মাধবপুর মৌজার আবুল মাষ্টারের জমিতে গলায় গামছা পেঁচিয়ে কৃষক হানিফকে মাটিতে ফেলে দেয় স্ত্রীর ভাই মুকুল। এরপর আসমত দুই পা চেপে ধরে। আসামি শ্যামল তার বুক উঠে চেপে ধরে। তাৎক্ষণিক মুকুল ছোরা দিয়ে হানিফকে জবাই করে। তারপর তার মরদেহ ফেলে পালিয়ে যায়। পরদিন স্ত্রী দোলনা ও মুকুল মিলে হানিফকে খোঁজার নাটক করে। পরে তারা মরদেহ শনাক্ত করে মামলার বাদী আমিরুলকে মোবাইলে জানায়। তখন বাদী নুরিয়া দরবার শরীফে ছিলেন। 

ঘটনার তদন্তে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৬ জানুয়ারি আরকান্দি মন্ডলপাড়ায় দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। ওই ঘটনায় আহত হন মো. ইয়াসিন আলী প্রামাণিক ও তার ছেলে ময়নুল প্রামাণিক। তাদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইয়াসিন মারা যান। সেই ঘটনায় দায়ের করা হত্যা মামলায় মুকুল ও তার স্বজনদের আসামি করা হয়। ওই মামলা থেকে মুক্তি ও ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে হানিফকে হত্যা করে তারা। তবে আসামিদের কললিস্ট ও তাদের কথোপকথন শোনে হত্যার আসল রহস্য উদঘাটন করে পুলিশ। 

আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট আবু জাফর সিদ্দিকী ও মোছা. আয়েশা সিদ্দিক।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ