কালিয়াকৈরে রাস্তার কাজে অনিয়মের অভিযোগ  

কালিয়াকৈরে রাস্তার কাজে অনিয়মের অভিযোগ  

গাজীপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৩৮ ৪ জুলাই ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর পৌর সভার চন্দ্রা থেকে বক্তারপুর পর্যন্ত রাস্তার সংস্কার কাজে নিম্নমানের ইট ও বালু ব্যবহারসহ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। অল্প সময়ের মধ্যে রাস্তা নষ্ট হয়ে যাবে বলে ধারণা করেছে এলাকাবাসী। এদিকে নির্দিষ্ট সময়ে কাজ শেষ না হওয়ায় চরম দুর্ভোগে স্থানীয়রা। 

পৌরসভা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর পৌরসভার চন্দ্রা থেকে বক্তারপুর রাস্তার ৩ হাজার ১০০ মিটার বিএমডিএফ কাজের ৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকা ব্যয়ে রাস্তার কাজ চলছে।  এরমধ্যে রাস্তাটি ৫৪০ মিটার ঢালাই কাজ ও ২ জাজার ৫৬০ মিটার কার্পেটিং কাজ হবে। পুরো রাস্তার মধ্যে ৭টি কালভার্টের কাজ রয়েছে। গত বছর সেপ্টম্বর মাসে কাজ শুরু হয় কিন্তু চলতি বছরে জুলাইয়ে মধ্যে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও এখন পযর্ন্ত ৪০ ভাগ কাজ বাকি বয়েছে। বৃষ্টি হলে ভোগান্তির সীমা থাকে না ওই রাস্তায় চলাচলকারীদের।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বিশাল এন্টারপ্রাইজের কাজের গাফলতির কারণে রাস্তার কাজ ধীরগতি হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া রাস্তার দু-পাশে দুই ফুট বালু দিয়ে ভরাট করার কথা থাকলেও তাও  হচ্ছে না বলে এলাকাবাসী জানায়। পূর্বের  রাস্তার পুরাতন ইট ও নিম্নমানের ইট বালু দিয়ে কাজ করার অভিযোগ রয়েছে।  

গাড়ি চালক বেলাল মিয়া জানান, রাস্তায় দুই নম্বর ইট বালু দিয়ে কাজ চলছে। এই রাস্তা বেশি দিন টিকবে না।  

ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান বিশাল এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী মো. হোসেন আলী জানান, ভাল কাজ হয়েছে। আর রাস্তায় যদি দুই নম্বর ইট থাকে তাহলে সরিয়ে ফেলবো। আপনার নিউজ করার দরকার নেই।

কালিয়াকৈর পৌরসভার নিবার্হী প্রকৌশলি হরিপদ রায় জানান, রাস্তার কাজ খারাপ করার কোনো সুযোগ নেই। আর আধলা ইট যদি ভাল হয় তাহলে চলবে সমস্যা নেই। দুই নম্বর ইট দিয়ে রাস্তায় কাজ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তবে নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করতে না পারলে ঠিকাদার সময় চাইলে তাকে সময় বাড়িয়ে দেয়া হবে।

কালিয়াকৈর পৌরসভার মেয়র মো. মজিবুর রহমান জানান,  রাস্তায় নিম্নমানের কাজ হলে কাজের বিল দেয়া হবে না। ঠিকাদারকে কোন ছাড় নয়। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ