Alexa কাঠের আসবাবপত্র রাখুন নতুনের মতো এই উপায়ে...

কাঠের আসবাবপত্র রাখুন নতুনের মতো এই উপায়ে...

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৪৭ ১৭ জুলাই ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অনেকেরই কাঠের আসবাবপত্র পছন্দের। কাঠের তৈরি আসবাবপত্র ঘরের সৌন্দর্য দিগুণ করে এবং এর স্থায়িত্বও অনেক বেশি। প্রায় সব বাসাতেই কাঠের আসবাবপত্র রয়েছে। একটা সময় ছিল, কাঠের আসবাবপত্রের ব্যবহারে আভিজাত্যের প্রকাশ পেত। এখনো এর কদর কোনো অংশে কমেনি। বরং কাঠের তৈরি আসবাবপত্রের গুরুত্ব আরো বেড়েছে। তবে যত্নের অভাবে এটি পুরান হয়ে যায়। তাই সঠিক নিয়মে কাঠের আসবাবপত্রের যত্ন নেয়া হলে এর উজ্জ্বলতা ধরে রাখা সম্ভব অনেক দিন। চলুন কাঠের আসবাবপত্রের যত্নে জেনে নেয়া যাক কিছু কার্যকরী টিপস-  

সূর্যের আলো থেকে দূরে রাখুন
কাঠের আসবাবপত্র সরাসরি সূর্যের আলো থেকে দূরে রাখুন। সূর্যের আলো কাঠের ময়েশ্চার শুষে নেয়। যার কারণে দ্রুত কাঠের আসবাবপত্র ভেঙ্গে যায়। এমনকি দ্রুত কাঠের রংও নষ্ট হয়ে যায়। তাই সূর্যের আলো এবং তাপ থেকে কাঠের আসবাবপত্র দূরে রাখুন।

পানি থেকে দূরে রাখুন
কাঠের আসবাবপত্র পানিতে ভেজাবেন না। সবসময় পানি থেকে দূরে রাখুন কাঠের আসবাবপত্রকে। তবে কুসুম গরম পানিতে সাবান পানি মিশিয়ে আসবাবপত্র পরিষ্কার করতে পারেন। কিন্তু এটি ব্যবহারের পর শুকনো কাপড় দিয়ে পানি মুছে ফেলুন। শক্ত, তেল চিটচিটের দাগগুলো টুথপিক দিয়ে উঠিয়ে নিতে পারেন।

শু পলিশ ব্যবহার
কাঠের আসবাবপত্রে আঁচড়ের দাগ দূর করতে শু পলিশ ব্যবহার করুন। কাঠের রং অনুযায়ী শু পলিশ আঁচড়ের স্থানে হালকা করে লাগিয়ে নিন। এটি আঁচড়ের দাগ হালকা করতে সাহায্য করবে।

পাতলা মোমের প্রলেপ
নষ্ট হওয়া থেকে কাঠের আসবাবপত্র রক্ষা করার জন্য মোমের পাতলা প্রলেপ কাঠের আসবাবপত্রের উপর লাগিয়ে দিন। তারপর ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। কিছুটা শুকিয়ে গেলে আবার মোমের প্রলেপ লাগিয়ে দিন। ৩০ মিনিট পর আবার এটি করুন। এইভাবে কয়েকবার করুন। মোম কাঠের আসবাবপত্রকে ঘুণ পোকার হাত থেকে রক্ষা করে। এর স্থায়ীত্ব বাড়িয়ে দেয় অনেকখানি।

তেল ব্যবহার না করা
অনেক সময় কাঠের আসবাবপত্র সাইনি করতে অলিভ অয়েল, নারকেল তেল কাপড়ে লাগিয়ে মুছে থাকেন। এটি আসবাবপত্র তেলতেলে করে ধুলাবালি, ময়লাকে আকৃষ্ট করে থাকে। তাই তেল দিয়ে আসবাবপত্র মোছা আজই বন্ধ করুন। নিয়মিত ধুলাবালি পরিষ্কার আর একটুখানি যত্ন কাঠের আসবাবপত্রকে সুন্দর রাখতে সাহায্য করে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ

Best Electronics
Best Electronics