Alexa কাঁচাপাট ভবিষ্যতে ঘুরে দাঁড়াবে: বিজেএ সভাপতি

কাঁচাপাট ভবিষ্যতে ঘুরে দাঁড়াবে: বিজেএ সভাপতি

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৫৩ ১৬ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বাংলাদেশ জুট অ্যাসোসিয়েশনের (বিজেএ) চেয়ারম্যান শেখ সাঈদ আলী বলেছেন, বার বার কাঁচাপাট রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্তেই ব্যবসায় ধস নেমেছে। ১৯৮৪, ২০১০, ২০১৫, ২০১৬ ও ২০১৭ সালে কাঁচাপাট রফতানি বন্ধ করা হয়। এর মধ্যে ২০১৩-১৫ সালে বিএনপি-জামায়াত জোটের জ্বালাও পোড়াও রাজনীতির কারণে পাট ব্যবসায়ীরা আরো বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ব্যবসায়ীরা ঋণে জর্জরিত হয়ে পড়েছেন। তবে এ খাতে প্রধানমন্ত্রীর সুনজর থাকায় কাঁচাপাট ভবিষ্যতে ঘুরে দাঁড়াবে।

শনিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরে সংগঠনটির কার্যালয়ের আফজাল মিলনায়তনে বার্ষিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি আরো বলেন, দেশে ৭০ থেকে ৮০ লাখ বেল কাঁচাপাট উৎপাদন হচ্ছে। এর মধ্যে জুট স্পিনিং মিলগুলোতে প্রয়োজন ৪০-৫০ লাখ বেল। অথচ একটি চক্র বারবার সরকারকে ভুল বুঝানোর কারণে অনেক পাট ব্যবসায়ী হারিয়ে গেছে। পাট ব্যবসায়ীরা দেশের জন্য শত কোটি টাকা বৈদেশিক মুদ্রা আয় করলেও সরকার তাদের জন্য সাবসিডি (ভর্তুকি) দেয়নি।

বিজেএ’র সভাপতি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাঁচাপাটের প্রতি সুদৃষ্টি রয়েছে। শিগগিরই শ্রম প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাব। পাট ব্যবসায়ীদের কল্যাণে বাংলাদেশ জুট অ্যাসোসিয়েশন কাজ করছে। আমরা অতীতের গৌরব ফিরিয়ে আনব ইনশাল্লাহ।  

সভায় জানানো হয়, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে আট লাখ ২৪ হাজার ৯৯৯ বেল কাঁচাপাট রফতানি করে ৮৫৯ কোটি পাঁচ লাখ টাকা সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন হয়েছে। ২০১৯-২০ অর্থবছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিন মাসে এক লাখ ৩৭ হাজার ৪৮ বেল কাঁচাপাট রফতানি করে ১৩৭ কোটি ৪২ লাখ টাকা সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন হয়েছে। 

সভায় বার্ষিক আয়-ব্যয়ের বিবরণী পেশ করা হয়, এতে বছরে মোট আয় দুই কোটি ১৪ লাখ ৯৩ হাজার ৩৩৭ টাকা ও মোট ব্যয় এক কোটি ৭৫ লাখ ৩২ হাজার ৪৬৭ টাকা দেখানো হয়েছে। উদ্বৃত্ত ৩৯ লাখ ৬০ হাজার ৮৬৯ টাকা মূলধন তহবিলে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। এছাড়া তিনটি ব্যাংকের একাউন্টে বাংলাদেশ জুট অ্যাসোসিয়েশনের পৌনে দুই কোটি টাকা এফডিআর রয়েছে। পরে অ্যাসোসিয়েশনে নয় নতুন সদস্য অর্ন্তভুক্তি অনুমোদিত হয়।

নবনির্বাচিত কমিটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান আরজু রহমান ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জুট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ শিপার্স কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মো. রেজাউল করিম, বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান মো. কুতুবউদ্দিন, পরিচালক মো. লিয়াকত হোসেন, এফ.এম সাইফুজ্জামান, মো. নুরুল ইসলাম বাবুল, শেখ দাউদ হায়দার, টিপু সুলতান, জাহিদুল ইসলাম, এসএম সাইফুল ইসলাম পিয়াস, শেখ কাউসার আলী, শেখ শহিদুল ইসলাম, আব্দুস সোবহান শরীফ, তোফাজ্জল হোসেন, নুরুল হোসেন, খন্দকার আলমগীর কবির, শেখ রুহুল আমিন, এস এম হাফিজুর রহমান প্রমুখ। 

সভায় দেশের বিভিন্ন জেলার পাট ব্যবসায়ীরা অংশ নেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ