করোনা মোকাবিলায় সেন্টমার্টিন দ্বীপে নৌবাহিনীর ৩ জাহাজের কার্যক্রম

করোনা মোকাবিলায় সেন্টমার্টিন দ্বীপে নৌবাহিনীর ৩ জাহাজের কার্যক্রম

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:২৬ ৩ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ২১:৩৪ ৩ এপ্রিল ২০২০

করোনা মোকাবিলায় সচেতনতামূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সেন্টমার্টিনে স্থানীয় জনগণ, জেলে ও মাঝিদের জীবাণুনাশক স্প্রে তৈরি ও তা ব্যবহারের উপর প্রশিক্ষণ দেয় নৌবাহিনী- আইএসপিআর

করোনা মোকাবিলায় সচেতনতামূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সেন্টমার্টিনে স্থানীয় জনগণ, জেলে ও মাঝিদের জীবাণুনাশক স্প্রে তৈরি ও তা ব্যবহারের উপর প্রশিক্ষণ দেয় নৌবাহিনী- আইএসপিআর

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ মোকাবিলায় সেন্টমার্টিনে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছে নৌবাহিনী যুদ্ধজাহাজ বঙ্গবন্ধু, নির্ভয় ও নির্মূল। দেশের একমাত্র এই প্রবাল দ্বীপটিকে নিরাপদ ও সুরক্ষিত রাখতে নৌসদস্যরা স্থানীয় জনগণ, জেলে ও মাঝিদের জীবাণুনাশক স্প্রে তৈরি ও তা ব্যবহারের উপর প্রশিক্ষণ প্রদান করেন। পরে তাদের মাঝে জীবাণুনাশক স্প্রে তৈরির বিভিন্ন উপকরণ, স্প্রে মেশিন, মাস্ক, সাবান ইত্যাদি পরিচ্ছন্নতা সামগ্রী বিতরণ করা হয়। যাতে তারা এ দ্বীপটিতে আসা সব পর্যটক, জাহাজ, বোট ও ট্রলারগুলোকে সঠিকভাবে জীবাণুমুক্ত করার মাধ্যমে তাদের নিরাপদ আগমন নিশ্চিত করতে পারেন। 

শুক্রবার বিকেলে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ রেজা-উল করিম শাম্মী এ তথ্য নিশ্চিত করেন। 

তিনি জানান, এসময় নৌসদস্যরা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দ্বীপটিতে প্রবেশের একমাত্র জেটি, জেটিসংলগ্ন এলাকা ও স্থানীয় বাজারে জীবাণুনাশক স্প্রে করেন। এছাড়া স্থানীয় জনসমাগম পরিহার করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও মানুষকে ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে মাইকিং করার পাশাপাশি স্থানীয়দের মাঝে সচেতনতা তৈরিতে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন এবং লিফলেট বিতরণ করা হয়। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে সেন্টমার্টিন দ্বীপের পূর্ব পাড়া জামে মসজিদ ঈদগাহ মাঠ, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও মেরিন পার্কের ৯টি ওয়ার্ডের দুই শতাধিক গরীব, দুস্থ ও অসহায় পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ, চিনি, লবণসহ বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। 

বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে সমুদ্র ও উপকূলীয় এলাকায় নৌবাহিনী জাহাজ ও কন্টিনজেন্টসমূহ নিয়োজিত রয়েছে। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত নৌবাহিনীর জাহাজ ও কন্টিনজেন্টসমূহের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এমআরকে/এসএএম