করোনা দুর্যোগে কর্মীদেরও পাশে নেই রাজশাহী বিএনপি

করোনা দুর্যোগে কর্মীদেরও পাশে নেই রাজশাহী বিএনপি

রাজশাহী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৩৩ ৫ জুন ২০২০   আপডেট: ১৪:৩৭ ৫ জুন ২০২০

সংগৃহীত

সংগৃহীত

রাজশাহীতে করোনা পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষদের ত্রাণ ও আর্থিক সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে মহানগর আওয়ামী লীগসহ দলটির অঙ্গ সংগঠনগুলো। কিন্তু দু:সময়ে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো তো দূরের কথা, দলের কর্মী-সমর্থকদেরও পাশে থাকছে না বিএনপির নেতারা।  

নগর বিএনপির কয়েকজন কর্মী জানান, মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বিএনপি নেতারা কেউ কারো পাশে দাঁড়াচ্ছেন না। খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না নেতাদের। এই দুর্যোগময় পরিস্থিতিতে যারা বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত তারা এখন বড়ই অসহায়। একদিকে ব্যবসা-বাণিজ্য নেই, অন্যদিকে ছেলে-মেয়ে পড়াশোনার খরচসহ সাংসারিক টানাপোড়েনেও যাচ্ছে তাদের দিনকাল।

যদিও দলটির নেতাদের দাবি, কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী দলের দরিদ্র কর্মী-সমর্থক ছাড়াও সাধারণ মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। ঈদের আগে তাদের সহযোগিতা দেয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নগর বিএনপির এক কর্মী জানান, এখন চলছে করোনা দুর্যোগ। সবাই ঘরে বসে দিন কাটাচ্ছেন। কিন্তু দলের দু:সময়ে আমরা সবসময়  মিছিলে, মিটিংয়ে সরব ছিলাম। কিন্তু এখন কর্মীদের কাজ কর্ম নেই। সবাই বেকার, বাসায় বসে আছে। এসব কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে দলের সহযোগিতা খুবই প্রয়োজন ছিলো। ঈদের আগে সামান্য কিছু ঈদ উপহার দিয়েছেন কিছু নেতারা। এরপর আর খোঁজ নেই তাদের।

আরেক কর্মী জানায়, দলের নেতাদের কাছে আশা করেছিলাম এই মহামারির সময় কিছু সহযোগিতা পাবো। কিন্তু হতাশ হয়েছি। শুধু আমি না, আমার মতো বিএনপির অনেক কর্মী আছেন যাদের এই করোনা পরিস্থিতিতে দুরবস্থার মধ্যে দিন কাটাতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান আহবায়ক কমিটির সদস্য গোলাম মোস্তফা মামুন বলেন, দলের হাই কামাণ্ডের নির্দেশে ঈদের আগে দরিদ্র মানুষদের সহায়তা দেয়া হয়েছে। দলের কর্মী-সমর্থকদের জন্য স্থানীয়ভাবে ফান্ড তৈরি করে এই সহায়তা করা হয়েছে। তবে কেন্দ্র থেকে কোনো সহযোগিতা দেয়া হয়নি।

নগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, দলের দরিদ্র কর্মী-সমর্থকদের সহায়তা দেয়ার জন্য দলের কেন্দ্র থেকে কোন বরাদ্দ আসেনি। তবে স্থানীয়ভাবে ব্যক্তি উদ্যোগে দলের নেতারা কিছু কর্মীদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেছেন। আমরা সাধ্যমতো কর্মীদের নিজেদের অবস্থান থেকে সহযোগিতা করার চেষ্টা করছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এস/এসআর