করোনায় স্বামীর মৃত্যুতে বুকে দুই শিশু নিয়ে রেললাইনে স্ত্রীর ঝাঁপ

করোনায় স্বামীর মৃত্যুতে বুকে দুই শিশু নিয়ে রেললাইনে স্ত্রীর ঝাঁপ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৪৮ ৭ জুলাই ২০২০  

ফুট ওভারব্রিজের ফাইল ছবি।

ফুট ওভারব্রিজের ফাইল ছবি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শিক্ষক স্বামীর মৃত্যুর খবর পেয়ে দিশেহারা হয়ে যান স্ত্রী। এক পর্যায়ে দুই শিশু মেয়েকে নিয়ে রেললাইনে ঝাঁপ দেন স্বামী হারা স্ত্রী। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন মাসহ দুই মেয়ে।

মঙ্গলবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়ির দার্জিলিংয়ের চম্পাসারি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত ওই মৃত শিক্ষকের স্ত্রী ও দুই মেয়েকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

করোনায় মৃত যুবক খড়িবাড়ির রামজনম প্রাইমারি স্কুলে সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। লকডাউনে স্কুল বন্ধ থাকায় তিনি বাড়িতে ছিলেন।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম দ্যা ওয়াল জানায়, বাড়িতে থাকা অবস্থায় কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি, কাশিসহ করোনার উপসর্গে ভুগছিলেন ওই শিক্ষক। গত ৩ জুলাই শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে চিকিৎসক দেখাতে যান। সেখানে গেলে তাকে ভর্তি রাখা হয়। পরে পরীক্ষায় করোনা পজেটিভ রিপোর্টও আসে। দিনের পর দিন তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, শিক্ষকের অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। তবে তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। সোমবার রাতে তিনি মারা যান।

সংবাদ মাধ্যমটি আরো জানায়, শিক্ষকের পরিবার মঙ্গলবার সকালে মৃত্যুর খবর পান। এতে শোকে মূহ্যমান স্ত্রী ও দুই মেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েন।

স্থানীয়রা জানান, ওই শিক্ষকের মৃত্যু সংবাদ শুনেই দুই শিশু মেয়েকে পাগলের মতো বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যান তার স্ত্রী। তাকে বাধা দিয়েও আটকাতে পারেননি প্রতিবেশীরা।

পরে এনজেপিতে গিয়ে হাজির হন। সেখানেই ফুট ওভারব্রিজ থেকে দুই মেয়ে শিশুকে বুকে ধরে রেললাইনে জড়িয়ে ঝাঁপ দেন মৃত শিক্ষকের স্ত্রী। এ ঘটনা দেখে আশপাশে থাকা লোকের তাদের উদ্ধার করে। তখন রেল পুলিশ গুরুতর আহত মা ও দুই মেয়েকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ