করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের তালিকা করছে এফসিসিআই

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের তালিকা করছে এফসিসিআই

ফরিদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৫৫ ২৮ মে ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের কারণে চরম মন্দার শিকার ব্যবসা বাণিজ্য। এখন এই ক্ষতি কিভাবে কাটিয়ে ওঠা যায় তা নিয়েই চলছে আলোচনা।

ব্যবসায়ী নেতারা বলছেন, যেহেতু সীমিত আকারে হলেও সবকিছু খুলে দেয়ার কথা বলা হচ্ছে তাই ব্যবসা বাণিজ্যও চালু হবে কিছুদিনের মধ্যেই। আর তার আগেই গত দু’মাসে কার কেমন ক্ষতি হলো আর বর্তমান প্রেক্ষাপটেই বা কে কিভাবে এগোবে সেটিই এখন ভাবনার বিষয়।

এ নিয়ে ফরিদপুরের চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফসিসিআই) ভবনে বুধবার বিকেলে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ এক সভায় মিলিত হন। সেখানেই তারা সম্মত হয়েছেন সবার আগে চলমান বাস্তবতায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের একটি তালিকা প্রস্তুত করার।

‘আমরা আশা করছি সরকার আমাদের ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সাধ্যমতো সহায়তা করবে এবং পুঁজি হারানো ব্যবসায়ীদের ঋণ প্রদান করবে যাতে তারা আবার ঘুরে দাড়াতে পারে।’ ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান একথাই জানালেন।

তিনি বলেন, করোনার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সরকার কর্তৃক সম্প্রতি প্রণোদনা ঘোষনা দেয়ার পরে দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠন এফবিসিসিআই তাদের সহযোগী সংগঠনগুলোকে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়া ব্যবসায়ীদের তালিকা প্রস্তুতের সুপারিশ করেছে।

ফরিদপুরে অঘোষিত লকডাউনের ফলে সারাদেশের ছোট-বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মতো তারাও চরম আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে। এফসিসিআই এর সভায় দ্রুততম সময়ে ও সহজ শর্তে ঋণ সুবিধা কিভাবে পাওয়া যায় সে বিষয়ে বিভিন্ন মতামত উপস্থাপন করেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা।

সভায় ফরিদপুর চেম্বারের পরিচালকগণ ছাড়াও বণিক সমিতি, নিউমাকের্ট ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, চকবাজার ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, হাজি শরীয়াতুল্লাহ বাজারের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান জানান, ফেডারেশনের চিঠির প্রেক্ষিতে ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের নিয়ে জরুরি সভা করেছি। সেখানে সিদ্ধান্ত হয়েছে জেলার ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরির জন্য একটি কমিটি গঠন করা হবে।

এছাড়া যে সব ব্যবসায়ী সম্প্রতি সময়ে ক্ষতির মুখে পড়েছে তাদের জন্য একটি হেল্প ডেক্স খোলা হবে বলেও জানান তিনি। সেখানে ব্যবসায়ীরা তাদের সমস্যা ও মতামত জানাতে পারবেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে এফসিসিআই পরিচালক আওলাদ হোসেন বাবর, সাহেব সারোয়ার, জয়গোবিন্দ সাহা, মো. মনির হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে