করোনার কারণে জোনাকি উৎসব বাতিল করলো জাপান

করোনার কারণে জোনাকি উৎসব বাতিল করলো জাপান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৫৩ ৮ জুলাই ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

জাপানের তাতসুনো শহরে সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গেই ঝলমল করে ওঠে হাজার হাজার জোনাকি পোকার আলো। সেগুলো দেখার জন্য শহরটিতে প্রতিবছর ভিড় জমান হাজারো দর্শনার্থী।

তবে এ বছরে মহামারি করোনাভাইরাস ঠেকাতে নেয়া ব্যবস্থার কারণে জনপ্রিয় এই জোনাকি উৎসব বাতিল করেছে দেশটি। ফলে দর্শকের উপস্থিতি ছাড়াই আলোর নৃত্য প্রদর্শন করবে জোনাকিরা।

জাপানের এমন সিদ্ধান্তে এই পোকার ভক্তরা হতাশ হবেন। তবে এবার ভক্ত দর্শকদের উপস্থিতি ছাড়াই রাতের অন্ধকারে এই জোনাকিরা আলোয় জ্বলে উঠে ও নিভে যাওয়ার খেলার অপূর্ব নৈসর্গিক নৃত্য চালিয়ে যাবে।

জোনাকি উৎসবের দৃশ্য

জানা গেছে, প্রাকৃতিকভাবেই গ্রীষ্মের প্রথম দিকে মাত্র ১০ দিন জীবনের এক চূড়ান্ত উৎসবে মেতে ওঠে জোনাকিরা। নগরীর ট্যুরিজম বিভাগের কাতসুনরি ফুনাকি ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, জ্বলে ওঠার মাধ্যমে জোনাকিরা পূর্বরাগের আচরণ প্রকাশ করে। এর মাধ্যমে নারী ও পুরুষ জোনাকির মধ্যে যোগাযোগ স্থাপিত হয়। ১০ দিনের এই সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য একটি করে সঙ্গী খুঁজে নেয় তারা। এরপর পরের বছরের জন্য ডিম পাড়ে।

গাছের পাতায় জোনাকি পোকা

আবহাওয়া যদি অনুকূলে থাকে বৃষ্টি ও বাতাস না থাকে তবে নাগানো জেলার মধ্যাঞ্চলে তেনরিও নদীর তীরে তাতসুনো শহরে ৩০ হাজারেরও বেশি জোনাকি তাদের ১০ দিন মেয়াদের যাদুকরী নৃত্য প্রদর্শন করবে।

শহরের মেয়র ইয়াসুও তাকেই বলেন, ঐতিহাসিক রেকর্ডে দেখা যায় উনিশ শতকের শেষদিকে এবং বিশ শতকের শুরুতে এখানে বিপুল সংখ্যক জোনাকি পোকা দেখা গেছে।

নদীর উজানে বস্ত্র ও অন্যান্য শিল্প কারখানার দূষণের কারণে জোনাকি পোকা মরে যায়, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে শহর কর্তৃপক্ষ পরিবেশ উন্নয়ন ও জোনাকি পোকা রক্ষায় উদ্যোগ নেয়। এখন পোকা বেড়েছে এবং প্রতিবছর গ্রীষ্মের প্রথম ১০ দিনের জোনাকি উৎসব দেখতে হাজার হাজার পর্যটক ভিড় করেন।

তাকেই বলেন, যখন আমাদের প্রচুর জোনাকি থাকে তখন আমরা আলোকিত একটি দর্শনীয় প্রাকৃতিক দৃশ্য পাই। পানিতে তারা ও জোনাকিরা মিলে প্রতিবিম্বিত হয়।

সূত্র- সিএনএ

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএমএফ